default-image

১৪ এপ্রিল থেকে আরোপিত কঠোর বিধিনিষেধের আওতায় হোটেল–রেস্তোরাঁ খোলা থাকবে। তবে নতুন সময়সীমা নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে।

আজ সোমবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের জারি করা প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, ১৪ এপ্রিল থেকে খাবারের দোকান, হোটেল ও রেস্তোরাঁ দুপুর ১২টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা এবং রাত ১২টা থেকে সকাল ৬টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। তবে হোটেল ও রেস্তোরাঁয় বসে কেউ খাবার খেতে পারবেন না। শুধু খাবার কিনে নিয়ে যাওয়া যাবে। অনলাইনেও খাবার কেনা যাবে।

করোনার সংক্রমণ প্রতিরোধে ৫ এপ্রিল থেকে কাজ ও চলাচলে বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়। ওই প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, খাবারের দোকানে বসে খাওয়া যাবে না, কেবল পার্সেল আকারে খাবার বিক্রি করা যাবে। তবে কোনো সময়সীমা উল্লেখ করা হয়নি।

বিজ্ঞাপন

এদিকে সরকারি এ ঘোষণাকে স্বাগত জানিয়েছে বাংলাদেশ রেস্তোরাঁ মালিক সমিতি। সংগঠনের পক্ষে আজ দুপুরে এক বিবৃতিতে বলা হয়, দুর্যোগ মুহূর্তে এই উপযোগী সিদ্ধান্ত ব্যবসায়ীদের মধ্যে কিছুটা স্বস্তি আনবে।

সংগঠনের পক্ষ থেকে আরও বলা হয়, ব্যবসায়ীদের কথা ও এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট দুই কোটি মানুষের কথা চিন্তা করে স্বাস্থ্যবিধি মেনে লকডাউনের ভেতর ব্যবসা করার দিক নির্দেশনা প্রদান করেছে সরকার। পরবর্তীতে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের বাকি দাবি দাওয়াগুলো পুনর্বিবেচনা করা হবে বলে আশা করছেন তাঁরা।

অর্থনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন