বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

অবশ্য সম্ভাবনাময় এই বাজার বাংলাদেশ ধরতে পারেনি। এ ক্ষেত্রে বড় বাধা হচ্ছে বাজারের চাহিদা সম্পর্কে সচেতনতার অভাব, অপর্যাপ্ত প্রযুক্তিগত দক্ষতা, উচ্চ মানসম্পন্ন পণ্যের কাঁচামাল সংগ্রহে অসুবিধা, কমপ্লায়েন্স ও সার্টিফিকেশনের চাহিদা এবং মূলধন বিনিয়োগের ওপর নির্ভরতা।

তৈরি পোশাকশিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএর সহযোগিতায় জার্মান উন্নয়ন সংস্থা জিআইজেড পরিচালিত ‘বাংলাদেশে ব্যক্তিগত সুরক্ষাসামগ্রী বা পিপিইসহ টেকনিক্যাল টেক্সটাইলের উৎপাদন বৃদ্ধির সম্ভাব্যতা’ শীর্ষক এক গবেষণায় প্রতিবেদন এমন তথ্য উঠে এসেছে। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে গবেষণা প্রতিবেদনটি প্রকাশ করা হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন ঢাকায় নিযুক্ত জার্মান রাষ্ট্রদূত আচিম ট্রোস্টার, বিজিএমইএর সভাপতি ফারুক হাসান, সহসভাপতি শহিদউল্লাহ আজিম, মিরান আলী প্রমুখ।

অর্থনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন