বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলনকেন্দ্রে এ অনুষ্ঠান হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। শনিবার অ্যাক্সেল ভ্যান ট্রটসেনবার্গ তিন দিনের সফরে বাংলাদেশে আসেন। উচ্চ আয়ের দেশে উন্নীত হতে হলে বাংলাদেশের সার্বিক সংস্কার প্রয়োজন বলে মনে করেন অ্যাক্সেল ভ্যান ট্রটসেনবার্গ। তিনি বলেন, দক্ষ মানবসম্পদ গড়ে তুলতে হলে শিক্ষায় বিনিয়োগ বাড়াতে হবে। তেমনি রাজস্ব-জিডিপি বাড়াতে সংস্কার দরকার। অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়ন হলেই তা টেকসই হবে। জনগোষ্ঠীর বড় অংশের জীবনমানের উন্নয়ন করতে না পারলে তা কাজে আসবে না। তিনি সুশাসন প্রতিষ্ঠার ওপরও জোর দেন।

গত পাঁচ দশকে বাংলাদেশের উন্নয়নের প্রশংসা করেন বিশ্বব্যাংক ব্যবস্থাপনা পরিচালক। তিনি বলেন, গত পাঁচ দশকে বিশ্বের অন্যতম দরিদ্র দেশ থেকে অন্যতম দ্রুত প্রবৃদ্ধির দেশে পরিণত হয়েছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশ হলো উন্নয়নের সেরা গল্প। বাংলাদেশকে এগিয়ে নিতে তিনটি বিষয়ে গুরুত্ব দিয়েছেন অ্যাক্সেল ভ্যান ট্রটসেনবার্গ। এগুলো হলো নারীর ক্ষমতায়ন, মানবসম্পদ উন্নয়নে বিনিয়োগ বৃদ্ধি এবং জলবায়ুর অভিযোজন।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন বিশ্বব্যাংকের দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের ভাইস প্রেসিডেন্ট মার্টিন রেইজার। তাঁর মতে, বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জের কারণে বাংলাদেশের রপ্তানি বিঘ্নিত হচ্ছে। আবার জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি অর্থনীতিতে প্রভাব ফেলছে।

২০৩১ সালের মধ্যে উচ্চমধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হওয়া বাংলাদেশের লক্ষ্য বলে জানান অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। তিনি বলেন, এই লক্ষ্য অর্জনে উন্নয়ন সহযোগীদের সহায়তা প্রয়োজন। অর্থমন্ত্রী জানান, স্বাধীনতার পর বাংলাদেশের অর্থনীতির আকার ৭৪ গুণ বেড়েছে। মাথাপিছু আয় বেড়েছে, আবার গড় আয়ুও বেড়েছে।

এদিকে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে গত পাঁচ দশকের বাংলাদেশের অগ্রগতি তুলে ধরতে এক আলোকচিত্র প্রদর্শনীরও আয়োজন করে বিশ্বব্যাংক।