আইডিআরএ গত রোববার দেশের সব লাইফ ও নন-লাইফ বিমা কোম্পানিকে চিঠি পাঠিয়ে বলেছে, ইংরেজির পাশাপাশি বাংলায়ও বিমা পলিসি করতে হবে। কোম্পানিগুলোকে এ জন্য প্রস্তুতি নিতে বলা হয়েছে।

বিমা কোম্পানিগুলোর মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তাদের (সিইও) সমিতি বাংলাদেশ ইনস্যুরেন্স ফোরামের (বিআইএফ) সভাপতি ও পপুলার লাইফ ইনস্যুরেন্স কোম্পানির সিইও বি এম ইউসুফ আলী আইডিআরএর এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন। প্রথম আলোকে গত রাতে মুঠোফোনে তিনি বলেন, ‘ইংরেজি থাকার কারণে অনেকে পলিসির সব শর্ত ও অন্যান্য দলিলের ভাষা বুঝতে পারেন না। ইংরেজির পাশাপাশি বাংলা থাকলে পুরো বিমা খাতের উপকারই হবে।’

চিঠিতে বলা হয়েছে, বিমা দাবি নিষ্পত্তিসংক্রান্ত শুনানিগুলোতে আইডিআরএ দেখেছে, বিমা পলিসি খোলার সময় যেসব শর্তের কথা বলা হয়, সেগুলো ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় দলিল সংস্থাটিতে দাখিল করতে পারছেন না গ্রাহকেরা। এ কারণে বিমা দাবি নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে জটিলতার সৃষ্টি হচ্ছে। এতে ক্ষতির শিকার হচ্ছেন গ্রাহকেরা। সংক্ষুব্ধ গ্রাহকেরা বিমার বিষয়ে নেতিবাচক বার্তাও প্রচার করছেন।

বিমা পলিসি বাংলা ভাষায় সহজ-সরল ও বোধগম্য হওয়া উচিত বলে চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে। বলা হয়েছে, বিমাপ্রতিষ্ঠানগুলোর পলিসি সম্পূর্ণ ইংরেজিতে হওয়ায় অধিকাংশ বিমা গ্রাহকেরা তাঁদের প্রাপ্যতা এবং প্রযোজ্য শর্তাবলি বুঝতে পারেন না। সে জন্য অন্যরাও বিমা সেবা গ্রহণে আগ্রহ হারিয়ে ফেলছেন। এতে বিমা খাতের কাঙ্ক্ষিত প্রবৃদ্ধি হচ্ছে না।

পলিসি করার সময় দাবি নিষ্পন্নের জন্য প্রয়োজনীয় দলিলপত্রের তালিকা বিমাগ্রাহককে দিতে হবে বলেও তাগিদ দেওয়া হয় চিঠিতে। বলা হয়, ইংরেজি ভাষার পাশাপাশি বাংলা ভাষায় প্রণয়ন করে তা চালু করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে হবে।

আইডিআরএর নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র এস এম শাকিল আখতার প্রথম আলোকে বলেন, ‘লেখাপড়া না জানা লোকেদের কাছে ইংরেজিতে তৈরি ফরমে বিমা পলিসি বিক্রি করছে কোম্পানিগুলো। আমরা চিঠি পাঠিয়ে বলেছি, এভাবে আর চলতে পারে না। সবাইকে বাংলায় পলিসি করার খসড়া প্রণয়ন করে আইডিআরএকে জানাতে বলা হয়েছে। পরে অংশীজনদের সঙ্গে বৈঠক করে তা চূড়ান্ত করা হবে।’

বিমা খাতে দেশে সাধারণ বীমা করপোরেশন ও জীবন বীমা করপোরেশন নামে দুটি সরকারি সংস্থা রয়েছে। বিদেশি জীবনবিমা কোম্পানি আছে দুটি—যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক মেটলাইফ ও ভারতীয় লাইফ ইনস্যুরেন্স কোম্পানি (এলআইসি)। এর বাইরে ৩২টি বেসরকারি জীবনবিমা কোম্পানি ও ৪৬টি সাধারণ বিমা (নন-লাইফ) কোম্পানি আছে।