শেয়ারবাজারে বৃহস্পতিবার থেকে আড়াই ঘন্টার লেনদেন চলবে। ব্যাংক খোলার সিদ্ধান্তের পর পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বিএসইসির চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত উল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, ‘ব্যাংকের সঙ্গে সমন্বয় করে বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টা থেকে সাড়ে ১২ টা পর্যন্ত শেয়ারবাজারে লেনদেন চলবে।’ এর আগে আজ দুপুরে ব্যাংক খোলার রাখার বিষয়ে মন্ত্রী পরিষদের পক্ষ থেকে বাংলাদেশ ব্যাংককে চিঠি দেওয়া হয়। সেই চিঠির পর ব্যাংক খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ ব্যাংক।
বিএসইসি আগে থেকেই বলে আসছিল, ব্যাংক খোলা থাকলেই শেয়ারবাজার খোলা থাকবে। সেই অনুযায়ী, ব্যাংকের সঙ্গে সমন্বয় করে বৃহস্পতিবার থেকে লেনদেন সচল রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

তবে ব্যাংক কয়টা থেকে খোলা থাকবে, কোনো ধরনের ব্যাংকিং কার্যক্রম চলবে তার ওপর নির্ভর করে শেয়ারবাজারের লেনদেন। ব্যাংক খোলার বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক এখনো চূড়ান্ত নির্দেশনা জারি করেনি। তবে বিএসইসির পক্ষ থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকের শীর্ষপর্যায়ের ব্যক্তির সঙ্গে কথা বলে শেয়ারবাজার চালুর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানান সংস্থাটির চেয়ারম্যান।

বিজ্ঞাপন
সকাল ১০ টা থেকে সাড়ে ১২ টা পর্যন্ত শেয়ারবাজারে লেনদেন চলবে

এর আগে ব্যাংক বন্ধের সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে কাল থেকে এক সপ্তাহের জন্য শেয়ারবাজার বন্ধের নির্দেশনা জারি করে বিএসইসি। সেই অনুযায়ী, বিএসইসির কর্মকর্তা-কর্মচারী থেকে শুরু করে দুই স্টক এক্সচেঞ্জ ও ব্রোকারেজ হাউসের কর্মকর্তারা অনেকটা ছুটির আমেজ নিয়ে বাসায় ফিরে যান। বাসায় ফিরে দুপুরের পর আবার শুরু হয়েছে চিন্তা। সেই চিন্তা শেয়ারবাজার খুলবে কী, খুলবে না তা নিয়ে। আর সেই অপেক্ষার শেষ হয়েছে বিএসইসির শেয়ারবাজার খোলার রাখার সিদ্ধান্তের মধ্য দিয়ে। তাতে আগামীকাল পয়লা বৈশাখের ছুটির পর পরশু থেকে আবার শেয়ারবাজার চালু হচ্ছে।

শেয়ারবাজার থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন