শেয়ারবাজার
গ্রাফিকস: প্রথম আলো

আজ ঢাকার শেয়ারবাজারের লেনদেন ইতিবাচক ধারায় শুরু হয়। সূচক ও লেনদেন উভয় ক্ষেত্রেই গতি ছিল। প্রথম এক ঘণ্টায় লেনদেন ২০০ কোটি টাকা ছাড়িয়ে যায়। কিন্তু প্রথম ঘণ্টার লেনদেনের পর সূচক পড়ে যায়; লেনদেনও গতি হারিয়ে ফেলে, লেনদেন হওয়া বেশির ভাগ শেয়ারেরই দাম কমে যায়।

আজ মূল্যবৃদ্ধি ও লেনদেনের ক্ষেত্রে এককভাবে এগিয়ে ছিল বিমা খাত, এরপর এগিয়ে ছিল তথ্য প্রযুক্তি খাত ও সিমেন্ট খাত। কিন্তু এখন বাজারে নেতিবাচক ধারা দেখা যাচ্ছে, বেশির ভাগ শেয়ারের দরপতন হয়েছে। বাজারের তিনটি সূচকই নিম্নমুখী।

আজ যথারীতি শেয়ারবাজারে লেনদেনের শীর্ষে আছে ফি ওয়াং ফুড। কয়েক মাস ধরেই এই কোম্পানি লেনদেনের তালিকায় শীর্ষে আছে। এই কোম্পানির কারণে সামগ্রিকভাবে খাদ্য খাতের কোম্পানিগুলোর শেয়ারের দামও বেড়েছে। এ ছাড়া প্রথম ঘণ্টায় বিবিধ খাতেরও কোম্পানির শেয়ারেরও দাম বেড়েছে, তবে পরের ঘণ্টায় বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম আবার কমেছে।

আজ দিনের প্রথম দুই ঘণ্টার লেনদেনের পর বাজারে তিনটি সূচকই ছিল নিম্নমুখী। প্রধান সূচক ডিএসইএক্সের পতন হয়েছে শূন্য দশমিক ৮৯ পয়েন্ট; ডিএসইএসের পতন হয়েছে শূন্য দশমিক ৮৮ পয়েন্ট; ডিএস ৩০ সূচকের পতন হয়েছে ২ দশমিক ৪৯ পয়েন্ট।

বেলা ১২টা পর্যন্ত লেনদেন হয়েছে ২৭৭ কোটি টাকার। লেনদেনের তালিকায় শীর্ষে থাকা ফু ওয়াং ফুডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে ৩৩ কোটি টাকার; দ্বিতীয় স্থানে থাকা ইস্টার্ন হাউজিংয়ের লেনদেন হয়েছে ২১ কোটি টাকার; তৃতীয় স্থানে থাকা ইস্টার্ন ইন্স্যুরেন্সের লেনদেন হয়েছে ১২ কোটি টাকার।