গত মঙ্গলবার চেক জমা দিয়েই শেয়ার কেনার সিদ্ধান্ত পুনর্বহাল করে নির্দেশনা জারি করে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। এর আগে গত ১১ অক্টোবর চেক নগদায়ন না হওয়া পর্যন্ত বিনিয়োগকারীদের শেয়ার কেনার সুবিধা বাতিল করা হয়। বিএসইসির নির্দেশনার আলোকে ডিএসই এ–সংক্রান্ত আদেশ জারি করেছিল।

এদিকে, পাশাপাশি বেড়েছে সূচকও। ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স বেড়েছে প্রায় ৩৬ পয়েন্ট। তাতে দিন শেষে ডিএসইএক্স সূচকটি বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ৩৮৯ পয়েন্টে। গত কয়েক দিনের দরপতনের কারণে অধিকাংশ শেয়ারের দাম সর্বনিম্ন মূল্যস্তর বা ফ্লোর প্রাইসে নেমে আসে। এর মধ্যে গতকাল বেশ কয়েকটি কোম্পানির শেয়ারের দাম ফ্লোর প্রাইস থেকে ওপরে উঠেছে।

তেমনি একটি কোম্পানি বেক্সিমকো লিমিটেড। লেনদেনের দাপুটে অবস্থানে থাকা এ কোম্পানির শেয়ারের দাম বেশ কয়েক দিন ফ্লোর প্রাইসে আটকে ছিল। এ কারণে কোম্পানিটির শেয়ারের খুব বেশি লেনদেন হয়নি। গতকাল এটির শেয়ারের দাম ফ্লোর প্রাইসের ওপরে উঠে আসে। এদিন কোম্পানিটির শেয়ারের দাম ১ টাকা ১০ পয়সা বা ১ শতাংশ বেড়ে হয়েছে ১১৬ টাকা ৭০ পয়সা।

ফ্লোর প্রাইস থেকে ওপরে ওঠার পাশাপাশি গতকাল ঢাকার বাজারে লেনদেনের শীর্ষে জায়গা করে নিয়েছে কোম্পানিটি। এদিন বেক্সিমকোর ১৯৯ কোটি টাকার সমমূল্যের শেয়ারের হাতবদল হয়। আর দিন শেষে হাতবদল হয় ১ কোটি ৭০ লাখ শেয়ার। ডিএসইতে লেনদেনের শীর্ষ ৫ কোম্পানির তালিকায় থাকা অপর ৪ কোম্পানির সম্মিলিত লেনদেনের পরিমাণ ছিল ২২৮ কোটি টাকা। অর্থাৎ চার কোম্পানি মিলে যে পরিমাণ লেনদেন হয়েছে, তার প্রায় সমপরিমাণ লেনদেন হয়েছে বেক্সিমকোর।

জানতে চাইলে নাম প্রকাশ না করার শর্তে শীর্ষস্থানীয় এক মার্চেন্ট ব্যাংকের প্রধান নির্বাহী বলেন, চেক জমা দিয়েই শেয়ার কেনার সুবিধা বাতিলের কারণে গত মাসের মাঝামাঝি থেকে শেয়ারবাজারে কিছুটা নেতিবাচক প্রভাব পড়তে শুরু করে। এ অবস্থায় পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসি গত মঙ্গলবার সুবিধাটি পুনর্বহালের নির্দেশনা জারি করে। তাতে বাজারে নতুন করে গতিসঞ্চার হয়েছে।