এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন এসএমই ফাউন্ডেশনের চেয়ারপারসন মো. মাসুদুর রহমান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মফিজুর রহমান।

শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার বলেন, এসএমই উদ্যোক্তাদের উৎসাহ দিতে এই মেলার আয়োজন করা হয়েছে। এ সময় উদ্যোক্তাদের জন্য ব্যবসা সহজ করতে সব ক্ষেত্রে হয়রানি কমানোর আহ্বান জানান তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, জাতীয় এসএমই পণ্য মেলায় অংশ নেওয়া ৩২৫ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সবচেয়ে বেশি থাকছে ফ্যাশনশিল্পের ১৩০টি। এ ছাড়া থাকবে খাদ্য ও কৃষি প্রক্রিয়াজাতকরণ পণ্যের ৪৫টি, হস্ত ও কারু শিল্পের ৩৮, চামড়াজাত পণ্য খাতের ৩৬, পাটজাত পণ্যের ৩৫, তথ্যপ্রযুক্তি পণ্য ও সেবা খাতের ৮, হালকা শিল্প পণ্য খাতের ৬, প্লাস্টিক পণ্যের ৫ ও ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিকস খাতের ৩টি প্রতিষ্ঠান।

এসএমই উদ্যোক্তাদের পণ্যের প্রচার ও প্রসারে ২০১২ সাল থেকে জাতীয় এসএমই পণ্য মেলা আয়োজন করছে এসএমই ফাউন্ডেশন। আয়োজকেরা জানান, প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মেলা প্রাঙ্গণ দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে। মেলায় বিনা মূল্যে প্রবেশ করা যাবে।