default-image

মঙ্গল গ্রহে রকেট পাঠানোর জন্য কিছুদিন ধরেই চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে ইলন মাস্কের মহাকাশ সংস্থা স্পেসএক্স। গত তিন মাসে তিনবার স্টারশিপ রকেটের পরীক্ষা চালিয়েছে স্পেসএক্স। তবে তিনবারই ব্যর্থ হতে হয়েছে ইলন মাস্ককে।

গতকাল বুধবারও এমন একটি রকেটের পরীক্ষা চালানো হয়। সবকিছুই ঠিকঠাক ছিল। স্টারশিপ এসএন-১০ নামের রকেটটি পরীক্ষামূলক উড়ান চমৎকারভাবে শেষ করে ফিরেও এসেছিল। অক্ষতভাবে অবতরণও করে, তবে কয়েক মিনিটের মধ্যেই তাতে আগুন ধরে যায় এবং তা ভেঙে পড়ে। এ নিয়ে স্টারশিপের পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণের পরপর তিনটি প্রয়াসই ব্যর্থ হলো। এর আগে গত ডিসেম্বর ও ফেব্রুয়ারিতে ভেঙে পড়েছিল স্পেসএক্সের রকেট।

গার্ডিয়ানের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়। গতকাল টেক্সাসের বোকা চিকা শহরে স্পেসএক্সের একটি উৎক্ষেপণকেন্দ্র থেকে গতি পরীক্ষার জন্য রকেটটি পাঠানো হয়। তবে মাত্র ১০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দেয় রকেটটি। এরপর আবার ফিরে এসে ল্যান্ডিং প্যাডে অবতরণ করে রকেট। এর কিছুক্ষণ পরই আগুন ধরে যায়।
সিএনএনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, রকেট ভেঙে পড়লেও বিষয়টি ইতিবাচক হিসেবে দেখছে স্পেসএক্স। কারণ, রকেটটিতে আগুন ধরার আগে এটি অবতরণ করতে সক্ষম হয়েছিল। স্পেসএক্স ইঞ্জিনিয়ার জন ইন্সপেক্টর বলেন, ‘আমরা ল্যান্ডিং প্যাডে একটি সফল স্পর্শ পেয়েছি।’

অবতরণ করার পরে রকেটটি কী কারণে বিস্ফোরিত হয়েছিল বা বিস্ফোরণের আগেই কোনো সমস্যা হয়েছিল কি না, তা এখনো স্পষ্ট নয়।

বিজ্ঞাপন
বিশ্ববাণিজ্য থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন