চা উৎপাদনে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মধ্যে শীর্ষ দশে না থাকলেও চা পানে দশম স্থানে আছে বাংলাদেশ। ২০১৫ সালে ৭৮ হাজার টন চা পান করেছেন বাংলাদেশিরা। এমনটাই জানিয়েছে দ্য ইকোনমিস্ট-এর ওয়ার্ল্ড ইন ফিগার।

চীন চা উৎপাদন ও পান—দুটোতেই এগিয়ে আছে। ২০১৫ সালে চীন ২০ লাখ ৯৬ হাজার টন চা পাতা উৎপাদন করেছে। আর তারা পান করেছে ১৯ লাখ ৭৮ হাজার টন। চীনের পরের অবস্থানে আছে পার্শ্ববর্তী দেশ ভারত। ওই বছর দেশটি ১২ লাখ ৭ হাজার টন চা উৎপাদন করে। একই বছর ভারতীয়রা চা পান করেছে ৯ লাখ ৯৯ হাজার টন। চা পানে ভারত দ্বিতীয় হলেও কফিতে তারা কিন্তু দশম। এ ক্ষেত্রে একক দেশ হিসেবে যুক্তরাষ্ট্র শীর্ষে।

চীন ও ভারতের পর ২০১৫ সালে কেনিয়া ৪ লাখ ৪৫ হাজার টন, শ্রীলঙ্কা ৩ লাখ ৩৮ হাজার টন, ভিয়েতনাম ২ লাখ ২৮ হাজার টন, তুরস্ক ২ লাখ ২৭ হাজার, ইন্দোনেশিয়া ১ লাখ ৫৪ হাজার, ইরান ১ লাখ ১৯ হাজার, মিয়ানমার ৯৯ হাজার এবং আর্জেন্টিনা ৮৫ হাজার টন চা উৎপাদন করেছে।

কেনিয়া চা উৎপাদনে তৃতীয় শীর্ষ হলেও চা পানে তারা শীর্ষ দশে নেই। চা পানে তৃতীয় স্থানে আছে তুরস্ক। দেশটির মানুষ গত ২০১৫ সালে ৩ লাখ ৬ হাজার টন চা পান করেছে। এর পরের অবস্থানে আছে যথাক্রমে রাশিয়া, পাকিস্তান, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, জাপান, মিসর ও বাংলাদেশ।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন