default-image

ভারতের ব্যাংক খাতের স্বাস্থ্য ভালো নেই। গত বছরের তুলনায় এ বছর ব্যাংক খাতে জালিয়াতি অর্থ বেড়েছে আড়াই গুণ। ২০২০ অর্থবছরে ব্যাংক খাত থেকে জালিয়াতি হয়েছে ১ দশমিক ৯ লাখ কোটি রুপি। গত অর্থবছরে জালিয়াতির পরিমাণ ছিল ৭১ হাজার ৫০০ কোটি রুপি। ভারতের কেন্দ্রীয় ব্যাংক রিজার্ভ ব্যাংক ইন্ডিয়ার (আরবিআই) তথ্য অনুযায়ী, ২০২০ অর্থবছরে ব্যাংক খাতে জালিয়াতির সংখ্যা গত অর্থবছরের তুলনায় ২৮ শতাংশ বেড়েছে। টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞাপন

আরবিআই বলছে, ২০২০ অর্থবছরে ৮ হাজার ৭০০ জালিয়াতির ঘটনা ঘটে, যা আগের অর্থবছরে ছিল ৭ হাজার। আরবিআইয়ের তথ্য অনুযায়ী, সবচেয়ে বেড়েছে ঋণ জালিয়াতি। এই অর্থের ৯৮ শতাংশ ও সংখ্যার ৫৩ শতাংশই গ্রাহকের ঋণসংক্রান্ত জালিয়াতি। ইন্টারনেট ও কার্ডসংক্রান্ত জালিয়াতির ঘটনা বিশ্বব্যাপী এখন বেশি হলেও ভারতের ক্ষেত্রে তা কিছুটা কম। ৩১ শতাংশ এমন ঘটনা ঘটেছে। যার পরিমাণ ১৯৫ কোটি রুপি।

বিজ্ঞাপন

অবশ্য গত বছরের তুলনায় এ ধরনের জালিয়াতির সংখ্যা বেড়েছে। ২০২০ অর্থবছরে ইন্টারনেট ও কার্ডসংক্রান্ত জালিয়াতির ঘটনা ঘটেছে ১৯৫টি, যা গত অর্থবছরের তুলনায় ৭১টি বেশি।

এর আগে ২০১৯ অর্থবছরে এটিএম বা পিওএস মেশিনে ডেবিট কার্ড নকল করে জালিয়াতি, অনলাইন ব্যাংকিং জালিয়াতি ও এ ধরনের অপরাধের সংখ্যা কমেছিল।

ভারতের সরকার ও করপোরেট অফিসগুলো এপ্রিল-মার্চ অর্থবছর হিসাব করলেও আরবিআই জুন-জুলাই ধরে অর্থবছর হিসাব করে।

মন্তব্য পড়ুন 0