কর্মীদের ইউনিয়ন ইউনাইট বলেছে, বাস্তবে তাদের কর্মীদের এর চেয়ে অনেক বেশি মূল্যস্ফীতির চাপ মোকাবিলা করতে হচ্ছে। ফলে এই এককালীন দুই হাজার পাউন্ড তাদের বিশেষ কাজে আসবে না। সে জন্য তারা এই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছে।

আগস্ট মাসে এই অর্থ দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার কথা ছিল। কথা ছিল, প্রথমে ৩ হাজার ইউনিয়নবহির্ভূত কর্মীকে এই অর্থ দেওয়া হবে, এরপর বাকি ১১ হাজার ইউনিয়নভুক্ত কর্মীকে তা দেওয়া হবে।

ইউনাইটের আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক পরেশ প্যাটেল বিবিসিকে বলেছেন, কোম্পানির সঙ্গে ইউনিয়নের আলোচনা চলছিল। এককালীন সহায়তা হিসেবে কত অর্থ দেওয়া হবে, তা-ই ছিল আলোচনার বিষয়বস্তু। সোমবার এই এককালীন অর্থ সহায়তার খবর পাওয়া যায় এবং রোলস রয়েস কর্তৃপক্ষ পরে তা নিশ্চিত করেছে।

ইউনাইট বলেছে, ‘রোলস রয়েস কর্তৃপক্ষ এমনভাবে এই ঘোষণা দিয়েছে, যা অবশ্যই আমাদের দৃষ্টিতে ট্রেড ইউনিয়ন এবং এ বিষয়ে নিয়োগকর্তা ও ইউনিয়নগুলোর মধ্যে আলোচনার অবস্থানকে ক্ষুণ্ন করেছে।’

রোলস রয়েস কর্তৃপক্ষ শ্রমিকদের বেতন ৪ শতাংশ বৃদ্ধির প্রস্তাব করেছিল, যা মার্চ মাস থেকেই কার্যকর হওয়ার কথা ছিল। রোলস রয়েসের একজন মুখপাত্র বিবিসিকে বলেন, বিক্রয়কেন্দ্রের কর্মীদের জন্য ‘অন্তত এক দশকের মধ্যে সর্বোচ্চ বার্ষিক বেতন বৃদ্ধির প্রস্তাব’ ছিল এটি।

২০২২-২৩ সালের জন্য বেতন বৃদ্ধির বন্দোবস্ত নিয়ে ইউনিয়নগুলোর সঙ্গে রোলস রয়েসের আলোচনা এখনো চলছে। কোম্পানির মুখপাত্র বলেছেন, জীবনযাত্রার ব্যয় বৃদ্ধি এই আলোচনার অন্যতম মূল বিষয়।

ক্রমবর্ধমান মূল্যস্ফীতির সাপেক্ষে কোম্পানিগুলো এভাবে এককালীন সহায়তার দিকে ঝুঁকছে। লয়েডস ব্যাংক কর্মীদের জন্য এক হাজার পাউন্ড এককালীন সহায়তার ঘোষণা দিয়েছে। যুক্তরাজ্যের মূল্যস্ফীতি ৪০ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ ৯ শতাংশে পৌঁছেছে।

বিশ্ববাণিজ্য থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন