এ সময় উপস্থিত ছিলেন ব্র্যাক ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী সেলিম আর এফ হোসেন, যুক্তরাষ্ট্রের সানরাইজ ব্যাংকের প্রধান নির্বাহী ও জিএবিভির প্রধান ডেভিড রাইলিং, জিএবিভির নির্বাহী পরিচালক মার্টিন রোনার প্রমুখ।

আর্থিক খাতের টেকসই পরিচালনার ক্ষেত্রে বিদ্যমান সমস্যা ও তা থেকে সমাধানের পথ খুঁজে বের করার লক্ষ্যে ঢাকায় তিন দিনব্যাপী বৈশ্বিক এ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে। বিশ্বের ৪৩ দেশের ৭০টি ব্যাংক, ঋণমান যাচাইকারী সংস্থা ও ক্ষুদ্রঋণের প্রতিষ্ঠান নিয়ে গঠিত নেটওয়ার্ক জিএবিভির উদ্যোগে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এ আয়োজনে সহযোগিতা করছে ব্র্যাক ব্যাংক। 

ব্যাংক খাতে টেকসই ও ইতিবাচক পরিবর্তন আনতে ব্যাংকগুলোকে স্বচ্ছতার সঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানান স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘টেকসই উন্নয়ন, স্বচ্ছতা ও বিভিন্ন সেবার অন্তর্ভুক্তি—এসব মূল্যবোধ সামনে রেখে আমাদের অর্থব্যবস্থা পরিচালনা করতে হবে। ব্যাংকিং সেবা দেওয়ার ক্ষেত্রে শুধু প্রবৃদ্ধি ও মুনাফার দিকে তাকালে হবে না, একই সঙ্গে সমাজ ও মানুষের উপকারের বিষয়গুলো বিবেচনায় নেওয়া জরুরি। পাশাপাশি জলবায়ু পরিবর্তনের বিষয়টিও বিবেচনায় রাখতে হবে।’এ সময় তিনি ব্যাংক খাতের বিদেশি প্রতিনিধিদের সামনে বাংলাদেশের ১০ টাকায় ব্যাংক হিসাব খোলা ও একটি বাড়ি একটি খামারের মতো টেকসই উন্নয়ন মডেলের কথা তুলে ধরেন। 

ব্র্যাক ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী সেলিম আর এফ হোসেন বলেন, ‘জিএবিভির সদস্য ব্যাংকগুলোর লক্ষ্য শুধু মুনাফা করা নয়। তারা এমন একটি সমাজ তৈরির লক্ষ্যে কাজ করছে, যেখানে সবাই সম্মিলিত সমৃদ্ধির অনুভূতি নিয়ে কাজ করবে। এই বার্ষিক সম্মেলনের মাধ্যমে আরও বেশি মানুষের কাছে মূল্যবোধভিত্তিক ব্যাংকিংয়ের বার্তা ছড়িয়ে দিতে পারব আমরা।’