default-image

বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে দেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষার পাশাপাশি সরকারি ও বেসরকারি সংস্থার নিরাপত্তা রক্ষা, ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণ, জননিরাপত্তামূলক কাজ, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা, দারিদ্র্য বিমোচন, নারীর ক্ষমতায়ন, বিভিন্ন অনুষ্ঠানের নিরাপত্তাসহ আর্থসামাজিক উন্নয়নে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছে।

সম্প্রতি এই বাহিনীতে ব্যাটালিয়ন আনসার হিসেবে অস্থায়ী ভিত্তিতে শুধু পুরুষ প্রার্থীদের বাছাই করা হবে বলে বিভিন্ন পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিটি পাওয়া যাবে গত ২৯ নভেম্বর প্রথম আলোর ১৭ পৃষ্ঠায়। আগ্রহী প্রার্থীদের প্রাথমিক বাছাইয়ের জন্য নির্ধারিত তারিখ ও স্থানে উপস্থিত থাকতে হবে।

আবেদনের যোগ্যতা

বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, আনসার হিসেবে প্রশিক্ষণ নিতে হলে প্রার্থীদের ন্যূনতম মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট বা সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ পাস হতে হবে। বয়স হতে হবে ০৫-০১-২০২০ তারিখে ১৮ থেকে ২২ বছরের মধ্যে। শারীরিক যোগ্যতার ক্ষেত্রে উচ্চতা সর্বনিম্ন ৫ ফুট ৬ ইঞ্চি হতে হবে। ওজন ৪৯.৮৯৫ কেজি, বুকের মাপ ৩২-৩৪ ইঞ্চি, দৃষ্টিশক্তি লাগবে ৬/৬। তবে কোনো দুরারোগ্য ব্যাধি থাকলে প্রার্থীকে প্রাথমিক বাছাইয়ে নির্বাচন করা হবে না। প্রার্থীকে অবশ্যই অবিবাহিত হতে হবে।

আবেদনপদ্ধতি

প্রার্থীদের অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার (ইউডিসি) অথবা যেকোনো অনলাইন সুবিধাসম্পন্ন কম্পিউটার
থেকে বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর ওয়েবসাইটে (www.ansarvdp.gov.bd) ‘ব্যাটালিয়ন আনসার পদের জন্য আবেদন’ লিংকে ক্লিক করে আবেদনপত্র পূরণ করে দাখিল করতে হবে। লিংকটি ৬ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখ থেকে সক্রিয় হয়ে ৫ জানুয়ারি ২০২০ তারিখ পর্যন্ত সক্রিয় থাকবে। অনলাইন রেজিস্ট্রেশন ফি বাবদ ২০০ টাকা আবেদন পোর্টালে প্রদর্শিত বিকাশ/ রকেট/ মোবিক্যাশের মাধ্যমে জমা দিতে হবে, যা অফেরতযোগ্য। রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন হলে প্রত্যেক প্রার্থী রেফারেন্স আইডি পাবেন এবং ওই রেফারেন্স আইডি সংরক্ষণ করবেন। পরবর্তী সময়ে প্রার্থীর আবেদনে প্রদত্ত মোবাইল নম্বরে এসএমএসের মাধ্যমে প্রবেশপত্র ডাউনলোড করার জন্য নির্দেশনা প্রদান করা হবে। প্রার্থীরা অনলাইনে ওই রেফারেন্স আইডির মাধ্যমে প্রবেশপত্র প্রিন্ট করে সংরক্ষণ করবেন এবং বাছাইয়ের লক্ষ্যে নির্ধারিত সময়ে নির্ধারিত স্থানে প্রবেশপত্রসহ উপস্থিত হবেন।

প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

যাচাই-বাছাইয়ে অংশগ্রহণের জন্য প্রার্থীদের শিক্ষাগত যোগ্যতার মূল সনদপত্রের ফটোকপি, জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি, চারিত্রিক সনদপত্রের ফটোকপি, সদ্য তোলা ৬ কপি পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ছবি এবং প্রার্থীদের পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য কলম, পেনসিল, স্কেল, ক্লিপবোর্ডসহ বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখিত প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সঙ্গে আনতে হবে।

ভাতাদি

চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত প্রার্থীদের প্রশিক্ষণ চলাকালে দৈনিক খোরাকি ভাতা, রেশন ভাতা, চিকিৎসা ভাতা, ঝুঁকি ভাতা, যাতায়াত ভাতা, রেশন সামগ্রীসহ অন্যান্য সুবিধা দেওয়া হবে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0