বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে বিপিএসসি ফরম-৫এ (অ্যাপ্লিকেন্টস কপি)-সহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র/তথ্যাদির এক সেট আগামী ১ আগস্ট থেকে ৮ আগস্ট পর্যন্ত (সাপ্তাহিক ছুটির দিন ছাড়া) প্রতিদিন সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বেলা আড়াইটা পর্যন্ত পরিচালক (ইউনিট-৭), বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন সচিবালয়, আগারগাঁও, শেরেবাংলা নগর, ঢাকা-১২০৭ বরাবর সরাসরি বা ডাকযোগে জমা দিতে হবে। প্রতিটি ডকুমেন্টসের ওপর অবশ্যই রেজিস্ট্রেশন নম্বর লিখতে হবে।

default-image

যেসব কাগজপত্র জমা দিতে হবে—

  • ১. শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদের সত্যায়িত কপি।

  • ২. অভিজ্ঞতার সনদের সত্যায়িত কপি।

  • ৩. বিপিএসসি ফরম-৫এ (অ্যাপ্লিকেন্টস কপি)।

  • ৪. সরকার অথবা স্থানীয় কর্তৃপক্ষের চাকরি থেকে ইস্তফাদানকারী অথবা অপসারিত ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে ইস্তফাপত্র গ্রহণ অথবা অপসারণ আদেশের সত্যায়িত ফটোকপি।

  • ৫. সরকারি/আধা সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত সংস্থায় কর্মরত প্রার্থীদের ক্ষেত্রে নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষ কর্তৃক প্রদত্ত ছাড়পত্রের সত্যায়িত কপি।

  • ৬. আবেদনকারীর স্থায়ী ঠিকানা পরিবর্তিত হলে পরিবর্তিত স্থায়ী ঠিকানার স্বপক্ষে প্রামাণ্য সনদের সত্যায়িত কপি।

  • ৭. লিখিত পরীক্ষার প্রবেশপত্রের কপি।

  • ৮. তিন কপি পাসপোর্ট সাইজের সদ্য তোলা সত্যায়িত রঙিন ছবি।

  • ৯. মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক জারিকৃত সর্বশেষ সার্কুলার অনুযায়ী মুক্তিযোদ্ধার বয়সের প্রমাণপত্র/ডকুমেন্টস (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে)।

  • ১০. প্রতিবন্ধী প্রার্থীদের সমাজসেবা অধিদপ্তর কর্তৃক জারিকৃত প্রতিবন্ধী সনদ/পরিচয়পত্রের সত্যায়িত কপি (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে)।

  • ১১. জাতীয় পরিচয়পত্রের সত্যায়িত কপি।

  • ১২. নাগরিকত্বের সনদের সত্যায়িত কপি।

কোনো প্রার্থী নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে বিপিএসসি ফরম-৫এ (অ্যাপ্লিকেন্টস কপি)–সহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র/তথ্যাদি জমা দিতে ব্যর্থ হলে তাঁর প্রার্থিতা বাতিল বলে গণ্য হবে। কোনো প্রার্থীর সংশ্লিষ্ট নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে বর্ণিত কোনো শর্তের গুরুতর ঘাটতি পাওয়া গেলে মৌখিক পরীক্ষার আগে বা পরে যেকোনো পর্যায়ে ওই প্রার্থীর প্রার্থিতা বাতিল বলে গণ্য হবে।

লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের রেজিস্ট্রেশন নম্বর এই লিংকে দেখা যাবে।

খবর থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন