এ ধরনের প্রতারক চক্র বা মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর বাংলাদেশ, ঢাকা ও এর অধীন কোনো প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের নাম ব্যবহার করে ই-মেইল, খুদেবার্তা এবং চিঠিপত্র কিংবা তাদের ব্যক্তিগত যোগাযোগের ভিত্তিতে কাউকে কোনো ধরনের প্রলোভনের ফাঁদে না জড়ানোর জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। কেউ কোনো ধরনের সুবিধা বা টাকা চাইলেই বুঝে নিতে হবে সেটা প্রতারণা। এ ধরনের প্রতারকের ফোন নম্বর নিকটস্থ থানায় জানানো এবং প্রতারকদের পুলিশে সোপর্দ করার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়েছে, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের কোনো কাজে আর্থিক লেনদেনের প্রয়োজন নেই। মাউশি থেকে যেসব সেবা দেওয়া হয় তার জন্য সুনির্দিষ্ট নীতিমালা রয়েছে এবং তার ভিত্তিতেই সেবা দেওয়া হয়। এ সংক্রান্ত সব তথ্য মাউশির ওয়েবসাইটে নিয়মিতভাবে প্রকাশ করা হয়।

খবর থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন