বিআইবিএমে এমবিএম কোর্সে নতুন ব্যাচ ভর্তির কার্যক্রম শুরু হয়েছে। যেকোনো বিষয়ে স্নাতক উত্তীর্ণ ব্যক্তিরা এমবিএমে ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন। তাঁর মোট স্কুলিং সময় হতে হবে কমপক্ষে ১৬ বছর। তবে ভর্তির আবেদনের জন্য শিক্ষাজীবনে কমপক্ষে একটি প্রথম বিভাগ থাকতে হবে এবং কোনো তৃতীয় বিভাগ থাকলে হবে না। এ ছাড়া একই যোগ্যতায় এমবিএম (ইভিনিং) কোর্সে প্রতিবছর একটি ব্যাচ ভর্তি করা হয়। এমবিএম প্রোগ্রামের জন্য ১ জন শিক্ষার্থীকে ২০টি বিষয়ে ৬৬ ক্রেডিট সম্পন্ন করতে হয়।

default-image

শুরুতে ব্যাংকিং খাতের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষ মানবসম্পদ গড়ে তোলাই ছিল বিআইবিএমের লক্ষ্য। কিন্তু সময়ের সঙ্গে সঙ্গে এ লক্ষ্যের বিস্তার হয়েছে। ব্যাংক কর্মকর্তাদের পাশাপাশি উঠতি নতুন ও উদ্যমী শিক্ষার্থীদের শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ দিয়ে যাচ্ছে এ প্রতিষ্ঠান। আর তার জন্য চালু হয়েছে একাডেমিক প্রোগ্রাম এমবিএম। তাই যাঁরা ব্যাংকিংকে পেশা হিসেবে নিতে চান, তাঁদের জন্য অত্যন্ত উপকারী হতে পারে এ কোর্স। অনেক ক্ষেত্রে শুধু মৌখিক পরীক্ষার মাধ্যমেও চাকরির সুযোগ পাওয়া যায়। তা ছাড়া মেধাবী শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন ব্যাংকের পক্ষ থেকে বৃত্তি দেওয়া হয়।

সবাইকেই ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে আসতে হবে। ভর্তি পরীক্ষার জন্য আবেদনকারীকে ১২০ মিনিটের ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে হবে। পরীক্ষার মধ্যে ৬০ মিনিট বরাদ্দ থাকে এমসিকিউ বা নৈর্ব্যক্তিক প্রশ্নের উত্তর করার জন্য এবং ৬০ মিনিটের মধ্যে লিখিত প্রশ্নের উত্তর দিতে হয়। লিখিত পরীক্ষায় ফলাফলের ভিত্তিতে মৌখিক পরীক্ষার জন্য ডাকা হয়। মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ব্যক্তিদের মধ্য থেকে ফলাফলের ভিত্তিতে সর্বোচ্চ নম্বরপ্রাপ্ত ৫০ থেকে ৮০ জন ভর্তি হওয়ার সুযোগ পান।

*লেখক: বিআইবিএম কর্মকর্তা

বিজ্ঞাপন
পরামর্শ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন