বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
‘চ’ ইউনিটের সাধারণ জ্ঞান পরীক্ষায় ১০ হাজার ৬৫ জন শিক্ষার্থী অংশ নেন। তাঁদের মধ্যে ১ হাজার ৫৪০ জন অঙ্কন পরীক্ষার জন্য মনোনীত হন। সাধারণ জ্ঞান ও অঙ্কন পরীক্ষায় সমন্বিতভাবে উত্তীর্ণ হয়েছেন ২৫৮ জন (পাসের হার ২ দশমিক ৫৬)
মো. আখতারুজ্জামান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য

গত ৯ অক্টোবর ‘চ’ ইউনিটের সাধারণ জ্ঞান (৪০ নম্বরের) বিষয়ের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ১৭ অক্টোবর এর ফলাফল প্রকাশিত হয়। সাধারণ জ্ঞান পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে নির্বাচিত ১ হাজার ৫৪০ জন শিক্ষার্থীর ৬০ নম্বরের অঙ্কন (ফিগার ড্রয়িং) পরীক্ষা নেওয়া হয় গত ২৬ অক্টোবর। সাধারণ জ্ঞান ও অঙ্কন—দুই অংশে পাস নম্বর ছিল ৪০ শতাংশ। উত্তরপত্র মূল্যায়ন শেষে আজ ‘চ’ ইউনিটের চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশ করা হলো।

ফলাফল প্রকাশের সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মো. আখতারুজ্জামান সাংবাদিকদের বলেন, ‘চ’ ইউনিটের সাধারণ জ্ঞান পরীক্ষায় ১০ হাজার ৬৫ জন শিক্ষার্থী অংশ নেন। তাঁদের মধ্যে ১ হাজার ৫৪০ জন অঙ্কন পরীক্ষার জন্য মনোনীত হন। সাধারণ জ্ঞান ও অঙ্কন পরীক্ষায় সমন্বিতভাবে উত্তীর্ণ হয়েছেন ২৫৮ জন (পাসের হার ২ দশমিক ৫৬)।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েসবাইট ছাড়াও রবি, এয়ারটেল, বাংলালিংক বা টেলিটক নম্বর থেকে ‘DU CHA Roll No’ ফরম্যাটে ১৬৩২১ নম্বরে এসএমএস পাঠিয়েও ফলাফল জানা যাচ্ছে

‘চ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেওয়া শিক্ষার্থীরা এখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে গিয়ে প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে ফলাফল জানতে পারছেন। এ ছাড়া রবি, এয়ারটেল, বাংলালিংক বা টেলিটক নম্বর থেকে ‘DU CHA Roll No’ ফরম্যাটে ১৬৩২১ নম্বরে এসএমএস পাঠিয়েও ফলাফল জানা যাচ্ছে।

প্রকাশিত ফলাফল অনুযায়ী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘চ’ ইউনিটে এবার প্রথম হয়েছেন ময়মনসিংহ গার্লস ক্যাডেট কলেজের ছাত্রী কাবেরী আজাদ। তাঁর মোট নম্বর ১১০ দশমিক ২৫ (মূল পরীক্ষায় ১০০ নম্বরের মধ্যে ৯০ দশমিক ২৫)। দ্বিতীয় হয়েছেন মাদারীপুরের সরকারি নাজিমুদ্দিন কলেজের ছাত্রী মরিয়ম মালিহা, তাঁর মোট নম্বর ১০৪ দশমিক শূন্য ৩ (মূল পরীক্ষায় ১০০ নম্বরের মধ্যে ৮৪ দশমিক ২৫)। তৃতীয় হয়েছেন জয়পুরহাট সরকারি কলেজের ছাত্র নাহিদ হাসান, তাঁর মোট নম্বর ১০০ দশমিক ৭৫ (মূল পরীক্ষায় ১০০ নম্বরের মধ্যে ৮০ দশমিক ৭৫)।

‘ক’ ইউনিটের পছন্দক্রম ফরম পূরণ
এদিকে ‘ক’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ সব শিক্ষার্থীকে ১৬ থেকে ২৩ নভেম্বরের মধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে বিস্তারিত ফরম ও বিষয় পছন্দক্রম ফরম পূরণ করতে হবে। কোটায় আবেদনকারীদের ১৬ থেকে ২২ নভেম্বরের মধ্যে সংশ্লিষ্ট কোটার ফরম চারুকলা অনুষদের ডিন কার্যালয় থেকে সংগ্রহ করতে হবে। ফরম যথাযথভাবে পূরণ করে ওই সময়ের মধ্যেই ডিন কার্যালয়ে জমা দিতে হবে। কারও ফলাফল নিয়ে সন্দেহ থাকলে তা নিরীক্ষার জন্য নির্ধারিত ফি দেওয়া সাপেক্ষে ১৬ থেকে ২২ নভেম্বর পর্যন্ত চারুকলা অনুষদের ডিন কার্যালয়ে আবেদন করা যাবে।

শিক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন