বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এ ছাড়া এ সমঝোতার আওতায় ইউজিসির উদ্যোগে প্রতিবছর ‘মুজিব ১০০ আইডিয়া’ প্রতিযোগিতা আয়োজিত হবে। শীর্ষ ১০০ উদ্যোগকে ইনোভেশন হাবের মাধ্যমে মেন্টরিং ও গ্রুমিং প্রদান করা হবে। এ প্রতিযোগিতায় স্টার্টআপরা তাঁদের জ্ঞান ও দক্ষতা বৃদ্ধির মাধ্যমে নিজেদের সিড ও গ্রোথ পর্যায়ে পৌঁছাতে সক্ষম হবেন। একই সঙ্গে আইডিয়া প্রকল্প থেকে ‘মুজিব ১০০ আইডিয়া’ প্রতিযোগিতায় সেরা ১০ স্টার্টআপকে আইডিয়া প্রকল্পের সিলেকশন কমিটির মূল্যায়নের ভিত্তিতে ১০ লাখ টাকা করে অনুদান প্রদান করা হবে।

উদ্যোক্তাদের কল্যাণে ইন্ডাস্ট্রি-একাডেমিয়া, ইউজিসি এবং আইডিয়া প্রকল্প যৌথভাবে কাজ করবে। প্রশিক্ষণ, গ্রুমিং, অনুদান প্রদানসহ উদীয়মান ও সম্ভাবনাময় স্টার্টআপ বা উদ্যোক্তাদের সহযোগিতা করা হবে।

সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে ইউজিসির চেয়ারম্যান কাজী শহীদুল্লাহ, আইসিটি বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব এন এম জিয়াউল আলম, ইউজিসির সদস্য মো. সাজ্জাদ হোসেন, বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) মো. আবদুল মান্নান, ইউজিসির জনসংযোগ ও তথ্য অধিকার বিভাগের পরিচালক এ কে এম শামসুল আরেফিন, আইএমসিটি বিভাগের পরিচালক (অতিরিক্ত দায়িত্ব) মোহাম্মদ মাকসুদুর রহমান ভূঁইয়াসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় ইউজিসির চেয়ারম্যান বলেন, দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে একটি উদ্ভাবনী ইকোসিস্টেম বিকাশ ও শিক্ষার্থীদের উদ্ভাবন ও কর্মোপযোগী করে গড়ে তুলতে এ সমঝোতা বলিষ্ঠ ভূমিকা পালন করবে। এ সমঝোতা স্টার্টআপদের দক্ষতা ও জ্ঞান বৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখবে এবং দেশে ব্যাপক কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি হবে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদ্‌যাপন ও মুজিব বর্ষ উপলক্ষে চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের ওপর ১০ ও ১১ ডিসেম্বর দুদিনের আন্তর্জাতিক সম্মেলন আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইউজিসি। এ সম্মেলনের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ হচ্ছে আইডিয়া প্রতিযোগিতা। বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর শিক্ষক-শিক্ষার্থী, গবেষকসহ দেশের নাগরিকদের কাছ থেকে উদ্ভাবনী ধারণা পেতে আইডিয়া প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে।

শিক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন