হোয়াইট বোর্ড, পরবর্তী সময়ে দেখার জন্য ক্লাস রেকর্ডিং সুবিধা, যেকোনো ফাইলকে প্রেজেন্টেশন হিসেবে দেখানো, ভিডিও শেয়ারিং, চ্যাট, পোলিংসহ প্রয়োজনীয় সব সুবিধায় রয়েছে এতে। সম্প্রতি জুমের নিরাপত্তা নিয়ে অনাকাঙ্ক্ষিত একাধিক ঘটনাকে বিবেচনা করে সিস্টেমটিতে নিরাপত্তার ক্ষেত্রে জোর দেওয়া হয়েছে।

ক্লাসটিউনে অনলাইন ভর্তি, বাড়ির কাজ, অ্যাসাইনমেন্ট, রুটিন, সিলেবাস, একাডেমিক ক্যালেন্ডার, উপস্থিতি, পরিবহন, অ্যাকাউন্টস, পেরোলসহ অন্তত ২০টি আলাদা ফিচার রয়েছে। শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিভাবকসহ যুক্ত সবার জন্য আলাদা পাসওয়ার্ড, অ্যাকসেস কন্ট্রোলসহ এতে রয়েছে সর্বোচ্চ ডিজিটাল নিরাপত্তাব্যবস্থা।

ক্লাসটিউনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রাসেল টি আহমেদ বলেন, দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর ডিজিটাল রূপান্তরে কাজ করা ক্লাসটিউন চলমান করোনাভাইরাস মহামারিতে সময়োপযোগী ফিচার তৈরি করেছে। করোনাকালে আগের তুলনায় প্ল্যাটফর্মটিতে শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও শিক্ষকদের সংখ্যা বেড়ে গেছে। বিস্তারিত ওয়েবসাইট থেকে জানা যাবে।

শিক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন