default-image

অধ্যায় ১৪

টেকসই উন্নয়নের ক্ষেত্র

A B C

বন্যা, খরা খেলার মাঠ পার্ক উৎপাদন ও ভোগের ক্ষেত্রে সমতা

ক. SDG –এর পূর্ণরূপ লেখো।

খ. SDG কেন বাস্তবায়ন জরুির? ব্যাখ্যা করো।

গ. উদ্দীপকের A ক্ষেত্র বলতে কোনটিকে বোঝানো হয়েছে? ব্যাখ্যা দাও।

ঘ. B ও C ক্ষেত্রের কার্যক্রম কি A ক্ষেত্রকে প্রভাবিত করে? উত্তরের পক্ষে যুক্তি দাও।

উত্তর

ক. SDG-এর পূর্ণরূপ হলো Sustainable Development Goals.

খ. SDG বাস্তবায়ন করে দারিদ্র্য নির্মূল করে বাসযোগ্য পৃথিবী গড়ার আবশ্যক।

SDG-এর মূল লক্ষ্য হলো দারিদ্র্য নির্মূল করে অর্থনৈতিক, সামাজিক, ও পরিবেশগত উন্নয়ন ও ভারসাম্য আনয়ন। আর আমরা জানি যে দারিদ্র্য পৃথিবী থেকে দূর করতে পারলে পৃথিবী নানাবিধ সমস্যা থেকে মুক্ত হতে পারবে। অভাব বা দারিদ্র্য পৃথিবীর পরিবেশ দূষণ থেকে শুরু করে যুদ্ধ–বিগ্রহের সঙ্গে ও প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে সম্পৃক্ত।

গ. উদ্দীপকের ‘A’ ক্ষেত্র বলতে টেকসই উন্নয়নের অন্যতম প্রধান ক্ষেত্র পরিবেশকে বোঝানো হয়েছে। টেকসই উন্নয়ন বর্তমান সময়ে জাতিসংঘ কর্তৃক প্রদত্ত বিভিন্ন কর্মসূিচর মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কর্মসূচি। টেকসই উন্নয়ন বাস্তবায়ন করার জন্য ২০৩০ সাল লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে। এই সময়ের মধ্যে লক্ষ্য অর্জনের জন্য তিনটি প্রধান ক্ষেত্র নির্ধারণ করা হয়েছে। ক্ষেত্রগুলো হলো: অর্থনীতি, পরিবেশ ও সমাজ।

উদ্দীপকে ছকের মাধ্যমে তিনটি ক্ষেত্র সম্পর্কে ইঙ্গিত প্রদান করা হয়েছে। ক্ষেত্রগুলোর মধ্যে পরিবেশ ক্ষেত্রটির ব্যপকতা অনেক।

পরিবেশের অন্যতম প্রধান আলোচনার বিষয় হলো জলবায়ু। জলবায়ু অনুকূল ও প্রতিকূল দুটি অবস্থানই সৃষ্টি করে।

বিজ্ঞাপন

প্রতিকূল আবহাওয়া বলতে আমরা বিভিন্ন ধরনের প্রাকৃতিক দুর্যোগকে বুঝে থাকি। এগুলো হলো বন্যা, খরা, ঝড়। কালবৈশাখী, টর্নেডো, অতিবৃষ্টি, অনাবৃষ্টি, শৈত্যপ্রবাহকে বুঝে থাকি। উদ্দীপকে ছকের মধ্যে ক্ষেত্র উপস্থাপন করতে বন্যা ও খরাকে উপস্থাপন করা হয়েছে। বন্যা ও খরা প্রাকৃতিক অবয়ব এবং এগুলো জলবায়ুরও প্রধান উপাদান। আবার পরিবেশের অন্যতম প্রধান উপাদান হলো জলবায়ু। তাই ছকে ‘A’ ক্ষেত্র দ্বারা পরিবেশকে বোঝানো হয়েছে।

উদ্দীপকের ‘B’ ক্ষেত্র সামাজিক উপাদান বা সমাজক্ষেত্র এবং ‘C’ ক্ষেত্র অর্থনৈতিক ক্ষেত্রকে ইঙ্গিত করে, যা এ ক্ষেত্রে পরিবেশকে ব্যাপকভাবে প্রভাবিত করে। টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্র অর্জনের জন্য যে প্রধান ৩টি ক্ষেত্র নির্ধারণ করা হয়েছে, সেগুলো পরস্পর সম্পর্কযুক্ত এবং যেকোনো একটি ক্ষেত্রের কার্যক্রমই অন্য ক্ষেত্রকে প্রভাবিত করে।

উদ্দীপকের ‘B’ ক্ষেত্র সম্পর্কে বলতে গিয়ে খেলার মাঠ ও পার্ক উপস্থাপন করা হয়েছে। আবার ‘C’ ক্ষেত্র বলতে উৎপাদন ও ভোগের ক্ষেত্রে সমতার মাধ্যমে অর্থনৈতিক ক্ষেত্রকে বোঝানো হয়েছে। আমরা গ্রাম কিংবা শহর যেকোনো সমাজের কথা চিন্তা করি না কেন প্রতিনিয়ত এগুলোতে পরিবর্তন হচ্ছে। এসব পরিবর্তনের প্রভাব কিন্তু পরিবেশ ক্ষেত্রকে প্রভাবিত করছে। আবার অর্থনৈতিক প্রয়োজন মেটানোর জন্য আমরা উৎপাদন ও ভোগের ক্ষেত্রে কোনো সীমারেখা টানছি না। ফলে উন্নয়নের জন্য ব্যাপক শিল্পায়ন ও নগরায়ণ হচ্ছে। শিল্পায়নের ফলে ব্যাপক কার্বন নিঃসরণসহ অনেক ক্ষতিকর গ্যাস উৎপাদন হচ্ছে, যা সরাসরি পরিবেশের উপাদানকেই প্রভাবিত করছে। তাই এ কথা বলা যায় যে টেকসই উন্নয়নের তিনটি ক্ষেত্রের মধ্যে সমাজ ও অর্থনৈতিক ক্ষেত্র পরিবেশ ক্ষেত্রকে ব্যাপকভাবে প্রভাবিত করে।

শিক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন