মলাট রস

হাত ভাঙুন, পা ভাঙুন, মন ভাঙবেন না!

বিজ্ঞাপন

খবর: ঝালকাঠির রাজাপুরের লিমন হোসেন প্রায় সাত বছর আগে ব্যাবের গুলিতে পা হারান। এরপর অনেক প্রতিকূলতা মোকাবিলা করতে হয়েছে তাঁকে। প্রতিকূলতাকে পাশ কাটিয়ে জীবনের লক্ষ্যে এগিয়ে যাচ্ছিলেন।

default-image

বর্তমানে তিনি গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের সহযোগী প্রতিষ্ঠান গণবিশ্ববিদ্যালয়ের এলএলএমের চূড়ান্ত বর্ষের ছাত্র। গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের কর্মকর্তারা জানান, ২৬ অক্টোবর সকাল আটটার দিকে দুই শতাধিক লোক একযোগে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র পিএইচএ ভবনে সশস্ত্র হামলা চালায়। একপর্যায়ে তারা পাশের তিনটি ছাত্রী হোস্টেলের ভেতরে ঢুকে পড়ে। খবর পেয়ে কয়েকজন সহপাঠী নিয়ে লিমন হোসেন ঘটনাস্থলে যান। এ সময় হামলাকারীরা ছাত্রীদের উদ্দেশে নানা অশালীন কথাবার্তা বলছিল। লিমন এর প্রতিবাদ করেন এবং মুঠোফোনে সেই দৃশ্য ধারণ করার চেষ্টা করেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে হামলাকারীরা তাঁদের ওপর চড়াও হয়। হামলাকারীদের লাঠিসোঁটার আঘাতে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন লিমন। এরপর হামলাকারীরা লাঠি দিয়ে পিটিয়ে তাঁর ডান হাত ভেঙে দেয়। ঘটনার পর সহপাঠীরা তাঁকে উদ্ধার করে গণস্বাস্থ্য হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করেন। (সূত্র: প্রথম আলো, ২৭ অক্টোবর, ২০১৮)

আমাদের হাত দুটি, পা দুটি
কিন্তু মন মাত্র একটি
তাই হাত–পা ভাঙলেও
দয়া করে মন ভাঙবেন না!

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন