বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে সাতটি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা পিছিয়ে আগামী ৪ সেপ্টেম্বর পুনর্নির্ধারণ করা হয়েছে। ৩১ জুলাই ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। সম্প্রতি কেন্দ্রীয় ভর্তি কমিটির এক বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

ভর্তির ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, এসএসসি/সমমান ও এইচএসসি/সমমান পরীক্ষার জীববিজ্ঞান, রসায়ন, পদার্থবিজ্ঞান ও গণিত বিষয়ের প্রাপ্ত মোট নম্বরের ভিত্তিতে মেধাক্রম তৈরি করে আসনসংখ্যার ১০ গুণ প্রার্থীকে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ গ্রহণের জন্য বাছাই করা হয়েছে। যেসব আবেদনকারীর মোট প্রাপ্ত নম্বর ১০৩৭ বা তার ঊর্ধ্বে, কেবল তাঁরাই ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার সুযোগ পাবেন। ওয়েবসাইটে লগইন করে নিজ নিজ ফলাফল জানা যাবে। যেসব আবেদনকারী ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ পাচ্ছেন না, তাঁদের প্রদত্ত মোবাইল ব্যাংকিং নম্বরে কেন্দ্রীয় ভর্তি কমিটি কর্তৃক টাকা ফেরতের তারিখ নির্ধারণ করার পর একসঙ্গে ৭০০ টাকা করে ফেরত পাঠানো হবে।

কৃষি গুচ্ছের ভর্তি পরীক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ তারিখ ও সময়সূচি

যোগ্যদের ছবি আপলোড শুরু: ১৫ জুলাই, ২০২১ থেকে
প্রবেশপত্র ডাউনলোড: ১ থেকে ২৫ আগস্ট পর্যন্ত
ওয়েবসাইটে আসনবিন্যাস প্রকাশ: ২৫ আগস্ট
ভর্তি পরীক্ষার তারিখ: ৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১ (বেলা সাড়ে ১১টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত)
ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশের তারিখ: ৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১–এর মধ্যে

ভর্তি পরীক্ষার মানবণ্টন

এমসিকিউ পদ্ধতিতে ১০০ নম্বরের ভর্তি পরীক্ষা হবে। প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য ০.২৫ নম্বর কাটা যাবে।

দ্বিতীয়বারের মতো কৃষিবিজ্ঞান বিষয়ে ডিগ্রি প্রদানকারী সাতটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে এবার। এসব বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিমেল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়।

ভর্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন