default-image

২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক শ্রেণিতে এবার দুই ধাপে ভর্তি পরীক্ষা নেবে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট)। এর মধ্যে প্রাক্‌-নির্বাচনী পরীক্ষা (প্রাথমিক বাছাই) নেওয়া হবে আগামী ৩১ মে ও ১ জুন। এই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরাই ১০ জুন চূড়ান্ত ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেবেন। এবার কোভিড-১৯ মহামারির কারণে স্বাস্থ্যবিধি মেনে এসব পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এদিকে গত ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক শ্রেণির ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র বুয়েটের নিজস্ব ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে। গতকাল শনিবার প্রশ্নপত্র প্রকাশ করা হয়। আবেদনকারী শিক্ষার্থীদের পরীক্ষার প্রশ্নের ধারণা দিতেই এমন করা হয়েছে।

বুয়েটের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ১৫ এপ্রিল সকাল ১০টায় অনলাইনের মাধ্যমে বুয়েটের স্নাতক ভর্তির প্রাথমিক আবেদন শুরু হবে। চলবে ২৪ এপ্রিল বেলা তিনটা পর্যন্ত। ‘ক’ গ্রুপে (প্রকৌশল বিভাগসমূহ এবং নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগ) আবেদন, প্রাক্‌-নির্বাচনী ও মূল ভর্তি বাবদ ১ হাজার এবং ‘খ’ গ্রুপে (প্রকৌশল বিভাগসমূহ, নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগ এবং স্থাপত্য বিভাগে) ১ হাজার ২০০ টাকা মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে ফি দিয়ে এ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে।

ভর্তি পরীক্ষা কবে

এরপর ৩১ মে ও ১ জুন চার শিফটে এক ঘণ্টায় ১০০ নম্বরের এমসিকিউ পদ্ধতিতে প্রাক্‌-নির্বাচনী পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ৫ জুন মূল ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য যোগ্য আবেদনকারীদের নাম প্রকাশ করবে বুয়েট। ১০ জুন বুয়েটের মূল ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর ১ জুলাই নির্বাচিত ও অপেক্ষমাণ প্রার্থীদের নামের তালিকা প্রকাশ করা হবে।

আবেদনের পদ্ধতি

আবেদন করার নিয়ম ও ভর্তির নির্দেশিকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট (https://www.buet.ac.bd)-তে পাওয়া যাবে। ভর্তি পরীক্ষার সব কার্যক্রমের খবর বুয়েটের ওয়েবসাইট ও নোটিশ বোর্ডে পাওয়া যাবে।

আসনসংখ্যা

পার্বত্য চট্টগ্রাম এবং অন্যান্য এলাকার ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীভুক্ত প্রার্থীদের প্রকৌশল বিভাগ এবং নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগের জন্য মোট ৩টি, স্থাপত্য বিভাগে ১টি সংরক্ষিত আসনসহ মোট আসনসংখ্যা ১ হাজার ২১৫।

*২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের মডিউল ‘A’–এর প্রশ্নপত্র দেখতে এখানে ক্লিক করুন

* ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের মডিউল ‘B’–এর প্রশ্নপত্র দেখতে এখানে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন
ভর্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন