বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ট্রাস্টের পক্ষ থেকে ল্যাপটপগুলোকে উপহার হিসেবে দেওয়া হয়। এ মতিন চৌধুরী এই ট্রাস্টের প্রতিষ্ঠাতা ও আইইউবি বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান। আইইউবি ট্রাস্টি দিদার এ হুসাইন তাঁর বক্তব্যে শহীদ খালেক অ্যান্ড মেজর সালেক বীর উত্তম ট্রাস্ট এবং এর প্রতিষ্ঠাতা এ মতিন চৌধুরী ও তাঁর পরিবারের মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা, শিক্ষা ও মানবসেবায় সারা জীবন অবদানের জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।
জাতির জন্য খালেক ও মেজর সালেকের অবদানের কথা উল্লেখ করে উপাচার্য তানভীর হাসান বলেন, ‘আমরা কেবল ল্যাপটপ উপহার উদ্‌যাপন করছি না, আমরা এমন মহান মানুষের জীবন উদ্‌যাপন করছি, যাঁরা আমাদের জাতির জন্য তাঁদের জীবন উৎসর্গ করেছেন। তিনি মুক্তিযুদ্ধে বিশেষ করে ‘সালদা যুদ্ধে’ মেজর সালেকের বীরত্বের কথা স্মরণ করেন। এই দুজন সাহসী হৃদয়ের প্রতি সম্মান প্রদর্শনপূর্বক ১ মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।’

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন আইইউবির ট্রাস্টি মো. তানভীর মাদহার, ট্রাস্টি ও ইএসটিসিডিটির সাবেক চেয়ারম্যান আবদুল হাই সরকার, ফিন্যান্স কমিটির চেয়ারম্যান ও ট্রাস্টি জাভেদ হুসেইন, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক নিয়াজ আহমেদ খান, ট্রেজারার খন্দকার মো. ইফতেখার হায়দার প্রমুখ। এ সময় আইইউবি বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সদস্য ও সাবেক চেয়ারম্যান ট্রাস্টি রাশেদ আহমেদ চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

উচ্চশিক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন