বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গত শিক্ষাবর্ষ (২০২০-২১) পর্যন্ত ৭ হাজার ১২৫ শিক্ষার্থী স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার সুযোগ পেতেন। তবে গত ২১ মার্চ আসনসংখ্যা কমিয়ে ৬ হাজার ৮৫ করার সিদ্ধান্ত নেয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা পরিষদ (একাডেমিক কাউন্সিল)। অবশ্য গত ২০ এপ্রিল প্রথম বর্ষের অনলাইন ভর্তি কার্যক্রম উদ্বোধনকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মো. আখতারুজ্জামান কিছুটা ভিন্ন তথ্য দেন। তিনি বলেন, এবার আসনসংখ্যা ৬ হাজার ৩৫ করা হয়েছে। এর মধ্যে ক ইউনিটে ১ হাজার ৮৫১, খ ইউনিটে ১ হাজার ৭৮৮, গ ইউনিটে ৯৩০, ঘ ইউনিটে ১ হাজার ৩৩৬ এবং চ ইউনিটে ১৩০টি আসন রয়েছে।

default-image

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অনলাইন ভর্তি কমিটির আহ্বায়ক এবং কম্পিউটারবিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের অধ্যাপক মো. মোস্তাফিজুর রহমানের তথ্য অনুসারে, এবারের ভর্তি পরীক্ষায় ৫টি ইউনিটে প্রায় ৩ লাখ আবেদন জমা পড়েছে। ব্যাংক বন্ধ হয়ে যাওয়ায় রাতে জমা হওয়া কিছু আবেদন ফির তথ্য পাওয়া যায়নি, সেগুলো আজ পাওয়া যাবে।

গতকাল দিবাগত রাত ১২টা ১০ মিনিটে অধ্যাপক মো. মোস্তাফিজুর রহমান প্রথম আলোকে বলেন, ‘এখন পর্যন্ত ২ লাখ ৯০ হাজার ৩৩৬ জনের আবেদন ফি জমা হয়েছে। বুধবার (১১ মে) হয়তো আরও কিছু শিক্ষার্থীর ফি জমা হবে। বুধবার বিকেলে মোট আবেদনের সঠিক সংখ্যাটা বলা সম্ভব হবে। তবে ইতিমধ্যে আবেদন ও ফি জমা হয়েছে, এমন শিক্ষার্থীদের ১ লাখ ১৫ হাজার ৭০৮ জন ক ইউনিট, ৫৮ হাজার ৫৫১ জন খ ইউনিট, ৩০ হাজার ৬৯৩ জন গ ইউনিট, ৭৮ হাজার ২৭ জন ঘ ইউনিট এবং ৭ হাজার ৩৫৭ জন চ ইউনিটে আবেদন করেছেন।’

অধ্যাপক মো. মোস্তাফিজুর রহমান আরও বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট থেকে শিক্ষার্থীরা ভর্তি পরীক্ষাবিষয়ক যাবতীয় তথ্য জানতে পারবেন।

পরীক্ষার তারিখ ও মানবণ্টন
গতবারের মতো এবারও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা পাঁচটি ইউনিটে (ক, খ, গ, ঘ ও চ) দেশের বিভাগীয় শহরগুলোর কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হবে। আগামী ৩ জুন ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদভুক্ত ‘গ’ ইউনিটের মধ্য দিয়ে শুরু হবে এবারের ভর্তি পরীক্ষা। এরপর ৪ জুন কলা অনুষদভুক্ত ‘খ’ ইউনিট, ১০ জুন বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ক’ ইউনিট, ১১ জুন সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ঘ’ ইউনিট আর ১৭ জুন চারুকলা অনুষদভুক্ত ‘চ’ ইউনিটের সাধারণ জ্ঞান পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ক, খ, গ ও ঘ ইউনিটের পরীক্ষা হবে বেলা ১১টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত (দেড় ঘণ্টা)। তবে চারুকলার সাধারণ জ্ঞান পরীক্ষাটি হবে বেলা ১১টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত (৩০ মিনিট)।

default-image

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক, খ, গ ও ঘ ইউনিটে এবার মোট ১০০ নম্বরের ভর্তি পরীক্ষা হবে। এর মধ্যে ৬০ নম্বরের বহুনির্বাচনী ও ৪০ নম্বরের লিখিত অংশ থাকবে। দুই অংশের উত্তর দেওয়ার জন্য ৪৫ মিনিট করে মোট ৯০ মিনিট সময় থাকবে। চ ইউনিটে সাধারণ জ্ঞান অংশে ৪০ নম্বরের বহুনির্বাচনী পরীক্ষা হবে। এর উত্তর দেওয়ার জন্য সময় থাকবে ৩০ মিনিট। এ পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে পরে মেধাক্রম অনুযায়ী ১ হাজার ৫০০ জন ৬০ নম্বরের অঙ্কন পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার সুযোগ পাবেন। ওই পরীক্ষার জন্য বরাদ্দ থাকবে ৪৫ মিনিট সময়।

পাঁচটি ইউনিটেই প্রাপ্ত নম্বরের সঙ্গে এসএসসি ও এইচএসসির জিপিএর ওপর ১০ করে মোট ২০ নম্বর যোগ করে মেধাতালিকা প্রস্তুত করা হবে।

আগামী বছর থেকে সংস্কার
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতি সংস্কারের উদ্যোগ নিয়েছে। আগামী শিক্ষাবর্ষ (২০২২-২৩) থেকে পরীক্ষা হবে চারটি ইউনিটে। বিলুপ্ত হবে বিভাগ পরিবর্তনের ঘ ইউনিট। তখন থেকে ইউনিটগুলোর নামও বদলে যাবে। নতুন নাম হবে—বিজ্ঞান ইউনিট, ব্যবসায় শিক্ষা ইউনিট, চারুকলা ইউনিট এবং কলা, আইন ও সামাজিক বিজ্ঞান ইউনিট।

বিজ্ঞান ও ব্যবসায় শিক্ষা ইউনিটের ভর্তি-ইচ্ছুক শিক্ষার্থীরা বিভাগ পরিবর্তনের জন্য কলা, আইন ও সামাজিক বিজ্ঞান ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার সুযোগ পাবেন। মানবিক শাখার শিক্ষার্থীরা বিজ্ঞান বা বাণিজ্য বিষয়ে ভর্তির জন্য কলা, আইন ও সামাজিক বিজ্ঞান ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার সঙ্গেই গণিত-পরিসংখ্যান অথবা অর্থনীতি-হিসাববিজ্ঞান বিষয়ে পরীক্ষা দিতে পারবেন।

উচ্চশিক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন