default-image

এনআরবি জবস ও স্কিলএইড বাংলাদেশ যৌথভাবে আয়োজন করতে যাচ্ছে বছরব্যাপী তরুণদের জন্য দক্ষতা বৃদ্ধি ও শিক্ষামূলক আয়োজন। এ ব্যাপারে ১৩ জানুয়ারি প্রতিষ্ঠান দুটির মধ্যে একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এনআরবি জবসের পক্ষে চুক্তি স্বাক্ষর করেন প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও এম ই চৌধুরী শামীম এবং স্কিলএইড বাংলাদেশের পক্ষে চুক্তি স্বাক্ষর করেন প্রতিষ্ঠানটির প্রতিষ্ঠাতা মো. মাসুদ।

এই আয়োজনের আওতায় ২০২১ সালের প্রতি মাসে একটি করে অনলাইন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে। প্রতিটি অনুষ্ঠানে বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত থাকবেন এবং তরুণদের চাকরি, উদ্যোগ, চিন্তাশক্তি উন্নতি, বাধা অতিক্রম করার ক্ষমতা বৃদ্ধি, চতুর্থ শিল্পবিপ্লব মোকাবিলা, ফ্রিল্যান্সিংসহ কর্মক্ষেত্রে এগিয়ে যাওয়ার বিভিন্ন বিষয়ে দিকনির্দেশনা ও পরামর্শ দেবেন।  

বিজ্ঞাপন

এম ই চৌধুরী শামীম বলেন, এনআরবি জবসের মাধ্যমে চাকরিপ্রত্যাশীরা ক্যাটাগরি ও ইন্ডাস্ট্রি অনুযায়ী চাকরি খুঁজে নিতে পারেন। পাশাপাশি ইন্টার্নশিপ, সরকারি চাকরি ও বিদেশে চাকরির ব্যাপারেও খোঁজ করতে পারেন। তবে কর্মক্ষেত্রে বা চাকরির প্রতিযোগিতায় এগিয়ে থাকতে পড়াশোনার পাশাপাশি বিভিন্ন বিষয়ে দক্ষতা বাড়ানোর প্রয়োজন আছে। তিনি তরুণদের ডিজিটাল জ্ঞান বাড়ানোর ব্যাপারেও গুরুত্ব আরোপ করেন। এই আয়োজন তরুণদের বিভিন্নভাবে আরও সমৃদ্ধ করবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

মো. মাসুদ বলেন, ‘শুধু গৎবাঁধা পাঠ্যবই পড়ার মধ্যে নিজেদের সীমাবদ্ধ রাখলে সামনের দিনগুলোতে টিকে থাকা কষ্টকর হবে। চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের যুগে আমাদের প্রতিযোগিতা করতে হবে স্বয়ংক্রিয় ব্যবস্থা, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ইত্যাদির সঙ্গে। তাই নিজেদের অস্তিত্ব রক্ষার লড়াইয়ে টিকে থাকতে হলে সবার দক্ষতা বাড়ানোর কোনো বিকল্প নেই।’ তিনি আরও বলেন, স্কিলএইড বাংলাদেশ বিনা মূল্যে তরুণদের জন্য যে দক্ষতা বৃদ্ধির কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে, সেখানে এই উদ্যোগ একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন এনআরবি জবসের হেড অব বিজনেস মুশফিকুর রহমান, বিজনেস ডেভেলপমেন্ট বিভাগের ব্যবস্থাপক জাহিদ হাসান খন্দকার, সহকারী ব্যবস্থাপক নাসিম আহমেদসহ উভয় প্রতিষ্ঠানের অন্যান্য কর্মকর্তা।

বিজ্ঞাপন
উচ্চশিক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন