বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

বিশ্ববিদ্যালয় একটি মানদণ্ড নির্ধারণ করবে এবং এর মাধ্যমে চেয়ারের শিক্ষকের সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। এর মাধ্যমে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা ভারতের দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ে এসে পড়াশোনা করতে উৎসাহিত হবেন বলে আশা প্রকাশ করেন জোশি।

পিসি জোশি বলেন, সেখান থেকে আমাদের প্রচুর শিক্ষার্থী রয়েছে। আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীদের জন্য কয়েকটি ফেলোশিপ সরবরাহ করা হলে, তাঁদের সংখ্যা বাড়তে পারে। এ ছাড়া, ২০২০ সালে ২১ বাংলাদেশি শিক্ষার্থী দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছেন বলে জানান উপাচার্য পিসি জোশি।

উচ্চশিক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন