বিজ্ঞাপন

উপাচার্যকে আগামী চার বছরের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়টির কৃষিতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক স্বদেশ চন্দ্র সামন্তকেই উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। তবে রাষ্ট্রপতি প্রয়োজন মনে করলে যেকোনো সময় এই নিয়োগ বাতিল করতে পারবেন।

এ ছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে উপাচার্যকে সার্বক্ষণিকভাবে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে অবস্থান করতে হবে।

এই বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের পদটি শূন্য হয় গত ৪ জানুয়ারি। মেয়াদ শেষ হওয়ায় একই দিনে সহ–উপাচার্যের পদটিও শূন্য হয়। আবার কোষাধ্যক্ষের পদ আগে থেকেই শূন্য ছিল। এ রকম অবস্থায় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রারের অতিরিক্ত দায়িত্বে থাকা অধ্যাপক স্বদেশ চন্দ্র সামন্তকে উপাচার্যের রুটিন কাজ করার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। এর ফলে বিশ্ববিদ্যালয়টিতে বড় কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া যাচ্ছিল না বলে জানিয়েছিলেন একজন কর্মকর্তা।

জানা গেছে, আরও ছয়টি সরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্যের পদ শূন্য রয়েছে।

উচ্চশিক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন