default-image

চীনা অ্যাপ টিকটক ও উইচ্যাট বন্ধে যে আইনি উদ্যোগ নিয়েছিল মার্কিন সরকার, তা আপাতত স্থগিত করছেন দেশটির বর্তমান প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এর আগে জাতীয় নিরাপত্তা জন্য হুমকি উল্লেখ করে যুক্তরাষ্ট্রে অ্যাপদুটি নিষিদ্ধ করতে চেয়েছিলেন সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এরপর দুটি অ্যাপের নির্মাতা প্রতিষ্ঠান সে নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেয়।

অ্যাপ দুটি আসলেই জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকি কি না, তা যাচাই শেষে আগের নিষেধাজ্ঞা জারির স্থগিতাদেশ কিংবা বাতিল চেয়ে আবেদন করেছে বাইডেন প্রশাসন। অর্থাৎ নতুন নির্দেশনা না আসা পর্যন্ত অ্যাপ দুটি বহাল তবিয়তে যুক্তরাষ্ট্রে ব্যবসায় ও সেবা পরিচালনা করতে পারবে।

ডোনাল্ড ট্রাম্পের দাবি ছিল, চীনা প্রতিষ্ঠানের তৈরি মুঠোফোন অ্যাপ মার্কিন ব্যবহারকারীদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়া মানে যুক্তরাষ্ট্রের ‘জাতীয় নিরাপত্তা, বৈদেশিক নীতি এবং অর্থনীতি’ হুমকির মুখে।

বিজ্ঞাপন

বিশ্বব্যাপী ১০০ কোটির বেশি ব্যবহারকারী আছে বার্তা আদান–প্রদানের অ্যাপ উইচ্যাটের। তবে মোট আয়ের কেবল ২ শতাংশ আসে দেশটি থেকে। অন্যদিকে খুদে ভিডিও শেয়ার করার অ্যাপ টিকটকের ব্যবহারকারী কমবেশি ৮০ কোটি, যাদের ১০ কোটির বাস যুক্তরাষ্ট্রেই।

নিষেধাজ্ঞা বন্ধে টিকটকের মার্কিন ব্যবসায় বিক্রির জন্য সফটওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ওরাকল এবং সুপারমার্কেট জায়ান্ট ওয়ালমার্টের সঙ্গে আলোচনা শুরু করেছিল টিকটকের মূল প্রতিষ্ঠান বাইটডান্স। সে চুক্তি চূড়ান্ত হলে যুক্তরাষ্ট্রে নতুন মালিকের অধীনে থাকত টিকটক, সরাসরি চীনা অ্যাপ বলার সুযোগ থাকত না।

এখন বাইডেন প্রশাসন যদি চীনা অ্যাপগুলোর প্রতি সুর নরম করে, তবে ধরে নেওয়া যায়, ওরাকল কিংবা ওয়ালমার্টের সঙ্গে সম্ভাব্য চুক্তি থেকে সরে আসবে টিকটক।

প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন