default-image

চীনে আজ থেকে বন্ধ হয়ে গেছে গুগলের জিমেইল-সেবা। বেশ কিছুদিন ধরেই জিমেইল-সেবা ঠিকমতো ব্যবহার করতে পারছিল না দেশটির জনগণ।
দেশটির ওয়েব সেন্সরশিপ-বিরোধী গ্রেটফায়ার নামের সংস্থার দাবি, চীনের ইন্টারনেট ব্যবস্থার ওপর নজরদারি ও ওয়েব সেন্সরকারী গ্রেট ফায়ারওয়ালই এর জন্য দায়ী। গত শুক্রবার থেকে জিমেইল ব্যবহারের সুযোগ কমতে থাকে, এখনো জিমেইল-সেবা স্বাভাবিক হয়নি। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক খবরে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
গ্রেটফায়ার সংস্থার এক কর্মী দাবি করেন, ‘আমার মনে হয়, চীনে গুগলের অস্তিত্ব মুছে দেওয়ার চেষ্টা করছে সরকার। এ ছাড়া গুগলের ব্যবসাও কমানোর চেষ্টা করছে। একবার ভাবুন, যদি জিমেইল ব্যবহারকারীরা চীনা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে না পারেন, তখন তাঁরা গুগল ছেড়ে অন্য সেবা নিতে শুরু করবেন। এতে গুগলের ব্যবসা কমে যাবে।’
গুগল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, হঠাৎ চীনে জিমেইল ব্যবহারের হার কমে যাওয়ার প্রমাণ পেয়েছে তারা।

গুগল সিঙ্গাপুরের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ‘আমাদের দিক থেকে সব ঠিকঠাক আছে।’

চলতি বছরের জুন মাস থেকে গুগলের সব সেবার ক্ষেত্রেই সেন্সরশিপ শুরু করে চীন। কিন্তু এতদিন জিমেইল ব্যবহার করতে পারছিলেন ব্যবহারকারীরা।

বর্তমান কমিউনিস্ট পার্টির নেতাদের মতের বিরোধী কোনো প্রচারণা ও তাঁদের মতাদর্শকে চ্যালেঞ্জ করতে পারে, এমন কনটেন্টের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে চীন। চীনে বিশ্বের সবচেয়ে কার্যকর ইন্টারনেট সেন্সরশিপ পদ্ধতি চালু রয়েছে, যা গ্রেট ফায়ারওয়াল অব চায়না নামে পরিচিত।

বিজ্ঞাপন
প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন