default-image

সিঙ্গাপুরের নাগরিক শাও জি চিউকে তাদের নতুন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম টিকটক। গতকাল শুক্রবার প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়। শাও এর আগে টিকটকের নির্মাতা প্রতিষ্ঠান চীনের বাইটড্যান্সের প্রধান আর্থিক কর্মকর্তা ছিলেন।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, শাও বাইটড্যান্সের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রাখার পাশাপাশি প্রতিষ্ঠানটির প্রধান আর্থিক কর্মকর্তা পদেও থাকছেন।

শাও এক বিবৃতিতে বলেছেন, ‘আমরা শক্তিশালী এবং গভীর পরিচালনা দল গঠন করা চালিয়ে যাব। টিকটকের সাফল্যের পরবর্তী ধাপ ঠিক করছি আমরা।’

বিজ্ঞাপন

টিকটকের অন্তর্বর্তীকালীন প্রধান ভ্যানেসা পাপ্পাস প্রতিষ্ঠানটির প্রধান পরিচালন কর্মকর্তার ভূমিকায় থাকবেন। গত বছর টিকটকের প্রধান নির্বাহী কেভিন মেয়ারের পদত্যাগের পর প্রতিষ্ঠানটির অন্তর্বর্তীকালীন প্রধান নির্বাহীর দায়িত্ব নেন ভ্যানেসা পাপ্পাস।

বাইটড্যান্সের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়াহিমিং ঝ্যাং বলেন, ‘শাও আমাদের কোম্পানি ও শিল্প সম্পর্কে গভীর জ্ঞান রাখেন। আমাদের প্রাথমিক বিনিয়োগকারীদের দলে নেতৃত্ব দিয়েছেন। তিনি আমাদের দলে আরও গুরুত্ব বাড়াবেন। করপোরেট গভর্নেন্স ও দীর্ঘ মেয়াদি ব্যবসা উদ্যোগে গুরুত্ব দেবেন।’

রয়টার্স জানায়, কয়েক বছর ধরে টিকটক অ্যাপটি যুক্তরাষ্ট্রে জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। এ পরিস্থিতিতে যুক্তরাষ্ট্র ব্যক্তিগত তথ্যের নিরাপত্তার কথা বিবেচনায় অ্যাপটি ঘিরে তদন্ত শুরু করে। টিকটক তখন থেকে বেইজিংয়ের সঙ্গে এর দূরত্ব তৈরি করতে থাকে।

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প টিকটককে জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকি বলে ঘোষণা দেন। এখান থেকে চীন সরকার তথ্য সংগ্রহ করে বলেও অভিযোগ আনেন তিনি। তবে টিকটক এসব অভিযোগ অস্বীকার করে।

বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের বিদেশি বিনিয়োগ তহবিল কমিটি (সিএফআইইউএস) টিকটকের যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবসা ওরাকল ও ওয়ালমার্ট ইনকরপোরেশন কনসোর্টিয়ামের কাছে বিক্রির বিষয়টি পর্যালোচনা করছে।

বিজ্ঞাপন

গত বছর থেকেই টিকটক তাদের ব্যবসা বেইজিং থেকে যুক্তরাষ্ট্রে নেওয়ার পদক্ষেপ নেয়। কারণ, এটি তাদের গুরুত্বপূর্ণ ও বর্ধনশীল বাজার হয়ে উঠেছে। গত বছর বছর টিকটকের প্রধান অ্যালেক্স ঝু প্রাইভেসি তথ্য নিয়ে তাঁর পদ ছাড়েন। ঝু ছিলেন মিউজিক্যাল ডট লি অ্যাপের সহপ্রতিষ্ঠাতা। ওই অ্যাপ ১০০ কোটি ডলারে কিনে নেয় বাইটড্যান্স। পরে এটি পুনরায় টিকটক নামে ব্র্যান্ডিং করে প্রতিষ্ঠানটি।

ঝু সরে দাঁড়ানোর পর ডিজনিরা মেয়ারকে প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা করে টিকটক। তবে যুক্তরাষ্ট্র টিকটক নিয়ে নিরাপত্তা পর্যালোচনা শুরু করলে পদত্যাগ করেন মেয়ার।

নতুন সিইও শাও হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমবিএ করেছেন। ২০১৫ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত তিনি শাওমির প্রধান আর্থিক কর্মকর্তা হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন।

প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন