চড়া দামে বিটকয়েন বিকোচ্ছে ঠিকই, তবে তা বিল গেটসকে আকৃষ্ট করার মতো যথেষ্ট নয়। বিটকয়েনে তেমন আগ্রহীও নন তিনি।
default-image

এক সাক্ষাৎকারে সঞ্চালক অ্যান্ড্রু সরকিনকে সাবেক মাইক্রোসফট-প্রধান বলেছেন, তিনি বরং পণ্য উৎপাদনকারী কোনো প্রতিষ্ঠানে বিনিয়োগ করবেন, তবু বিটকয়েনে নয়। কেমন পণ্য? এই ধরুন, ম্যালেরিয়া কিংবা হামের টিকা। উদাহরণ হিসেবে এমনটাই উল্লেখ করেছেন বিল।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অ্যান্ড্রু সরকিনের সঙ্গে বিল গেটসের সাক্ষাৎকারটি অডিওনির্ভর অ্যাপ ক্লাবহাউসে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়। এর আগে অ্যাপটিতে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে আমন্ত্রণ জানিয়ে আলোচনার জন্ম দেন বৈদ্যুতিক গাড়ি তৈরির প্রতিষ্ঠান টেসলার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ইলন মাস্ক।

আমার সাধারণ উপদেশ হবে, ইলনের চেয়ে আপনার যদি কম টাকা থাকে, তবে আপনার সাবধান থাকা উচিত। ইলনের প্রচুর অর্থ আছে। আর তিনি বেশ বাস্তববুদ্ধিসম্পন্ন। তাই আমি মনে করি না, তাঁর বিটকয়েন হুট করে ওপরে উঠবে বা নিচে নামবে।
বিল গেটস, সহপ্রতিষ্ঠাতা, মাইক্রোসফট করপোরেশন
বিজ্ঞাপন

বিল গেটসের অনীহা থাকলেও ইলন মাস্ক কিন্তু বিটকয়েনে মজেছেন। টুইটারে প্রায়ই ভার্চ্যুয়াল মুদ্রা নিয়ে লিখছেন। সেটাও দৃষ্টি এড়ায়নি বিল গেটসের। সংবাদমাধ্যম ব্লুমবার্গকে এর আগে বলেছিলেন, ‘আমার সাধারণ উপদেশ হবে, ইলনের চেয়ে আপনার যদি কম টাকা থাকে, তবে আপনার সাবধান থাকা উচিত। ইলনের প্রচুর অর্থ আছে। আর তিনি বেশ বাস্তববুদ্ধিসম্পন্ন। তাই আমি মনে করি না, তাঁর বিটকয়েন হুট করে ওপরে উঠবে বা নিচে নামবে।’

দিন কয়েক আগে টেসলার পক্ষ থেকে ঘোষণা আসে, প্রতিষ্ঠানটি ১৫০ কোটি ডলার মূল্যের বিটকয়েন কিনেছে। ভবিষ্যতে লেনদেনের মাধ্যম হিসেবেও বিটকয়েন গ্রহণ করবে তারা। এরপরই বিটকয়েনের বিনিময়মূল্য প্রায় ৫০ শতাংশ বেড়ে যায়। অবশ্য সম্প্রতি ২০ শতাংশ পতনও দেখা যাচ্ছে।

তা ছাড়া মার্কিন ট্রেজারি সেক্রেটারি জ্যানেট ইয়েলেন মনে করেন, লেনদেনের মুদ্রা হিসেবে বিটকয়েন অত্যন্ত অযোগ্য মাধ্যম। বিল গেটসও দীর্ঘদিন ধরেই বিটকয়েনের ব্যাপারে সন্দিহান।

প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন