বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এসবই অবশ্য তাত্ত্বিক দিক। প্রায়োগিক দিক থেকে ভাবলে, কোনো ধরনের মোবাইল ডিভাইস ব্যবহার করে ভূমিকম্পের পূর্বাভাসের প্রযুক্তি এটি। প্রযুক্তিটি স্মার্টফোনেও যুক্ত হতে পারে বলে জানিয়েছে গিজমোচায়না। তবে সে জন্য অত্যন্ত সংবেদনশীল সেন্সর যুক্ত করতে হবে মোবাইলে। কাজটা একদম সহজ নয়। তা ছাড়া পেটেন্ট করেছে বলেই যে প্রযুক্তিটি শিগগিরই আলোর মুখ দেখবে, তেমন না-ও হতে পারে।

এর আগে ভাঁজযোগ্য (ফোল্ডেবল) স্মার্টফোনের পর্দা ক্রমাগত ভাঁজ করা কিংবা খোলার কারণে সৃষ্ট সমস্যা সমাধানে একটি প্রযুক্তির পেটেন্টের জন্য আবেদন করেছিল শাওমি। সে প্রযুক্তিটি পেটেন্ট করেছিল চায়না ন্যাশনাল ইন্টেলেকচুয়াল প্রপার্টি অ্যাডমিনিস্ট্রেশনে।

প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন