বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিভাগের (আইসিটি) প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ বলেন, সরকারের ১৭টি মন্ত্রণালয়ের ১ হাজারের বেশি সেবা মাইগভ প্ল্যাটফর্মে আনা হয়েছে। মাইগভের মাধ্যমে এক উইন্ডতে সব সেবা পাবেন নাগরিকেরা। আগামী দিনে সরকারের বাকি সেবাগুলোও এ প্ল্যাটফর্মে নিয়ে আসা হবে। এ ছাড়া মাইগভ প্ল্যাটফর্ম ইনক্লুসিভ পদ্ধতি তৈরি করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

আইসিটি প্রতিমন্ত্রী বলেন, এই সেবাগুলো যদি ডিজিটাইজড না হতো, তাহলে এ সেবা পেতে নাগরিকদের সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন অফিসে যেতে হতো। এতে সময় নষ্ট, অর্থ অপচয় হতো। অনিয়মও হতে পারত। অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি এলে তা টেকসই করতে গেলে সাংস্কৃতিক বিপ্লব প্রয়োজন বলে উল্লেখ করেন তিনি।

সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ সভাপতির বক্তব্যে বলেন, সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের ৩১১ সেবার ৩০৩টি ডিজিটাইজড করা হয়েছে। সব মন্ত্রণালয়ের মধ্যে এটি সর্বোচ্চ। যেসব সেবা বাকি আছে, সেগুলোও দ্রুত অন্তর্ভুক্ত হবে। প্রতিমন্ত্রী বলেন, সরকারের ডিজিটাইলেজশনের সুযোগ সবাই ব্যবহার করছে কিন্তু কেউ বুঝতে পারছে না। তাই মূল্যায়িতও হচ্ছে না। তিনি আইসিটি বিভাগ ও এটুআইকে সহযোগিতার জন্য ধন্যবাদ জানান।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন আইসিটি বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব এন এম জিয়াউল আলম, সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মনিরুল আলম, অসীম কুমার দে এবং এটুআই প্রকল্প পরিচালক দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ুন কবীর।

প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন