বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ফেসবুক প্রটেক্ট কী?

default-image

ফেসবুক ওয়েবসাইটে এ সম্পর্কে বলা হয়েছে, নির্বাচনে প্রার্থী, তাঁদের প্রচারণা কর্মী এবং নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম অ্যাকাউন্টগুলোর বাড়তি নিরাপত্তা প্রয়োজন। নির্বাচনের সময় অ্যাকাউন্টগুলো বাড়তি ঝুঁকির মুখে থাকায় তাঁদের বাড়তি নিরাপত্তা দিতে ‘ফেসবুক প্রটেক্ট’ নামের কর্মসূচি চালু করা হয় এবং সেটা ঐচ্ছিক। নির্বাচনে প্রার্থী, তাঁদের প্রচারণা কর্মী এবং নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা ‘চাইলে’ তাঁদের অ্যাকাউন্ট এবং পেজে প্রটেক্ট নামের সুবিধাটি সচল করতে পারেন। বিশেষ করে হ্যাকিং থেকে সুরক্ষার জন্য সুবিধা কাজের।

বাংলাদেশে অনেক ব্যবহারকারীও বার্তাটি পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন। কারও কারও ক্ষেত্রে ২৮ অক্টোবর, আবার কোনো ক্ষেত্রে ৩০ অক্টোবরের মধ্যে ফেসবুক প্রটেক্ট সচল না করলে অ্যাকাউন্ট লক করে দেওয়া হবে বলে জানানো হয়। এতে অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হবে না, তবে প্রটেক্ট সচল না করা পর্যন্ত অ্যাকাউন্ট লকড রাখা হবে।

ফেসবুক প্রটেক্ট চালু করলে কী হবে?

সুবিধাটি যাঁদের জন্য, তাঁরা যদি সচল করেন, তবে ফেসবুক তাঁদের অ্যাকাউন্টের নিরাপত্তা জোরদার করার জন্য নির্দেশনা দেবে। যেমন টু-ফ্যাক্টর অথেনটিকেশন চালু কিংবা হ্যাকিংয়ের চেষ্টা হচ্ছে কি না, তা নিয়মিত পর্যবেক্ষণ করা।

পেজের ক্ষেত্রে সব অ্যাডমিনের পোস্ট পাবলিশ করার জন্য নতুন করে অনুমোদন প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে যেতে হবে। যাঁরা ওই গুরুত্বপূর্ণ পেজগুলো ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে আছেন, তাঁদের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট একটির বেশি থাকা চলবে না, অবশ্যই নিজের আসল নাম ব্যবহার করতে হবে এবং নিরাপত্তার জন্য টু-ফ্যাক্টর অথেনটিকেশন চালু করতে বলা হবে। পাশাপাশি যে দেশে অবস্থান করছেন, সেটাও নিশ্চিত করতে হবে।

কীভাবে সচল করবেন?

ফেসবুকের তথ্য বলছে, প্রটেক্ট সুবিধাটি ঐচ্ছিক। তবে আদতে ভিন্ন অবস্থা দেখা যাচ্ছে। যাঁরা প্রটেক্ট সচল করার নোটিফিকেশন পেয়েছেন, তাঁদের বলা হচ্ছে, নির্ধারিত সময়ের পরও তা সচল না করলে অ্যাকাউন্ট লক করে দেওয়া হবে। নোটিফিকেশন পাওয়ার পর পর্দায় দেখানো নির্দেশনা মেনে সহজেই তা সচল করতে পারেন।

আর যাঁরা সে নোটিফিকেশন পাননি, তাঁদের চিন্তিত হওয়ার কিছু নেই। তবু চাইলে বাড়তি নিরাপত্তার জন্য সেটিংস থেকে সিকিউরিটি অ্যান্ড লগইনে গিয়ে টু-ফ্যাক্টর অথেনটিকেশন অপশন সচল করে নিতে পারেন। তবে কেবল এ নিয়ে বাড়তি চিন্তার কিছু নেই।

প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন