বিজ্ঞাপন
default-image

সিনেমার শুটিংয়ে অংশ না নিলেও ঈদের বিশেষ ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান আনন্দমেলা উপস্থাপনা করেছেন ফেরদৌস। বাংলাদেশ টেলিভিশনের অনুরোধে সর্বোচ্চ স্বাস্থ্যবিধি মেনে এই অনুষ্ঠানের দৃশ্যধারণে অংশ নেন তিনি। তাঁর সঙ্গে উপস্থাপনায় আরও ছিলেন অভিনেত্রী পূর্ণিমা।

হৃদি হকের এই সিনেমার শুরুতে অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন হালের আলোচিত নায়িকা পরীমনি। পরিচালক এই নায়িকাকে নিয়ে কয়েক দিন শুটিংও করেছিলেন। কিন্তু অপেশাদার আচরণের কারণে শেষ পর্যন্ত তাঁকে ছবিটি থেকে বাদ দেওয়া হয়।

default-image

প্রেক্ষাগৃহে সর্বশেষ মুক্তি পাওয়া ফেরদৌস অভিনীত ছবি অরণ্য পলাশ পরিচালিত ‘গন্তব্য’। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ভাষণ থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে ছবিটি নির্মাণ করা হয়েছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনীচিত্র ‘বঙ্গবন্ধু’তেও অভিনয় করার কথা ছিল ফেরদৌসের। শেষ পর্যন্ত ভিসা–জটিলতার কারণে তিনি আর ভারতে যেতে পারেননি, শুটিংয়েও অংশ নিতে পারেননি।

default-image

ফেরদৌস বলেন, ‘ভারতে প্রবেশসংক্রান্ত আমার একটা জটিলতা ছিল। সেটার সমাধান হয়নি। তাই ভিসা হয়নি, শুটিংয়েও যাওয়া সম্ভব হয়নি।’

ফেরদৌস সর্বশেষ অভিনয় করেছিলেন ‘মানিকের লাল কাঁকড়া’ সিনেমায়। নন্দিত অভিনয়শিল্পী ও পরিচালক আফজাল হোসেনের এই ছবির শুটিংয়ের পর আর ক্যামেরার সামনে দাঁড়াননি তিনি। করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় নিতান্ত প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকেও বের হননি।

বিনোদন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন