নায়িকা হতে চাননি নায়িকা মিতু

বিজ্ঞাপন
default-image

শাকিব খান আর কলকাতার দেবের সঙ্গে দুটি ছবির কাজ চলছে জাহারা মিতুর। জীবনের সঙ্গে যুক্ত হলো দুটি ছবির নাম, তা–ও আবার দুই দেশের দুজন নামকরা তারকার সঙ্গে। কিন্তু এই অভিনয়শিল্পী জানালেন, নায়িকা হওয়ার কোনো স্বপ্নই নাকি তাঁর ছিল না। স্বপ্ন দেখতেন সুন্দরী প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে দেশে সুনাম কুড়াবেন এবং দেশের বাইরে বাংলাদেশের পতাকা ওড়াবেন। গতকাল বুধবার নিজের ফেসবুক পেজে এমন একটি কথা পোস্ট করেন ঢালিউডের নবাগত এই নায়িকা।

‘সুপার মডেল বাংলাদেশ-২০১৭’ প্রতিযোগিতায় তিন বছর আগে এই দিনেই তাঁর মাথায় বিজয়ীর মুকুট ওঠে। নায়িকা হওয়ার বিষয়টি ভাগ্য হিসেবে মনে করছেন মিতু। এর আগেও একবার প্রথম আলোকে বলেছিলেন, ‘সত্যি কথা বলতে, কেউ কখনো ভাবেনি আমি অভিনয়ে আসব, উপস্থাপনা করব! সুন্দরী প্রতিযোগিতায় অনেকবারই আমার বন্ধুরা রেজিস্ট্রেশন করেছে। আমি সব সময় বলতাম, পড়ালেখাই ভালো। আমার সেই বন্ধুরাই অবাক, আমি নায়িকা! আমি কিন্তু পড়াশোনা করতে গিয়ে নাচ, গান, অভিনয়, আবৃত্তি—সবকিছুতেই অংশ নিতাম। বন্ধুরা তাই বলত, তুই সুন্দরী প্রতিযোগিতায় নাম লিখিয়ে অভিনয় আর মডেলিং শুরু কর। এখন বুঝি, এটাই আমার জায়গা। আমার পরিবার, বন্ধু ও শুভাকাঙ্ক্ষীরা অনেক খুশি। ঈদে যখন নানিবাড়ি গেলাম, নানি আমাকে বলেছিলেন, “জন্মের পরই তোর মাকে বলেছিলাম, মেয়ের চেহারা নায়িকাদের মতো।” বুঝলাম, তিনিও খুব খুশি। সত্যি ভাগ্যই আমাকে সিনেমার জগতে নিয়ে এসেছে।’

default-image

ভাগ্য সিনেমার জগতে নিয়ে এলেও সিনেমার প্রতি একটা ভালোবাসা তৈরি হয়েছে জাহারা মিতুর। প্রথম ছবি ‘আগুন’–এর শুটিং এখনো শেষ হয়নি। দ্বিতীয় ছবি ‘কমান্ডো’ করোনাভাইরাস সংক্রমণের তাণ্ডবে থেমে আছে। ছবি মুক্তি না পেলেও এখনো সবার কাছ থেকে অনেক উৎসাহ পাচ্ছেন ঢালিউডের নবাগত এই নায়িকা। তাঁর মতে, ‘আমাকে নিয়ে মানুষের নানা ধরনের মন্তব্য ও প্রত্যাশা দেখে মনে হয়েছে, তাঁরা আমাকে চলচ্চিত্রে নিয়মিত দেখতে চান।’

মিতু বলেন, ‘‌‌সিনেমা মুক্তির পর ভক্ত তৈরি হয়। আমি ভক্তদের কথা বলছি না। আমি যখন উপস্থাপনা করতে যাই, তখন চ্যানেলের লোকজন বলত, আপনাকে চলচ্চিত্রে মানায়। এর বাইরেও যখন যাঁর সঙ্গে কাজ করেছি, তাঁরা সবাই বলতেন, তুমি চলচ্চিত্রে বেশি ভালো করবে। একটা নাটকে আমাকে কালো বানানোর দরকার ছিল, মেকআপ দিয়ে কালো বানানো হলো। পরিচালক বললেন, “একি কালো বানিয়ে তো কোনো লাভ নেই। পর্দায় আপনাকে এখনো গ্ল্যামারাস লাগছে। আপনাকে নিয়ে আসলে আমার সিনেমাই বানানো উচিত।” এসব কথাই আমার মাথায় গেঁথে যায়। কিন্তু সিনেমায় অনেক প্রস্তাব পেলেও শুরুতে করতে রাজি হইনি। যখন শাকিব ভাইয়ের সঙ্গে ছবিতে অভিনয়ের প্রস্তাব পেলাম, তখন দুঃসাহস করে ফেললাম। আর এখন ভালোবাসার জায়গায় পরিণত হয়েছে চলচ্চিত্র।’

default-image

মিতু ‘সুপার মডেল বাংলাদেশ-২০১৭’ বিজয়ী হওয়া ছাড়াও ভারতে অনুষ্ঠিত ‘সুপার মডেল ইন্টারন্যাশনাল ২০১৭’–এরও তিনি একজন ফাইনালিস্ট। একই বছর মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশের প্রথম আসরের প্রথম রানারআপ ছিলেন। এ ছাড়া তিনি জিতেছিলেন ‘মিস ফ্যাশন আইকন’ ও ‘মিস ন্যাশনাল কস্টিউম’–এর খেতাব।

জাহারা মিতুকে নাটক আর মিউজিক ভিডিওতেও দেখা গেছে। ‘দ্য রিপাবলিক’ ও ‘বিবাহ হবে’ ধারাবাহিক দুটির মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করেছেন তিনি। বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ, বঙ্গমাতা অনূর্ধ্ব-১৯ আন্তর্জাতিক নারী গোল্ডকাপ, বিপিএলসহ পাঁচটি বেসরকারি চ্যানেলে খেলার অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেছেন তিনি।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন