default-image


বেশ কয়েক বছর আগে এক প্রবাসী ভক্ত তাঁকে বলেন, ‘ভাই, আমরা মাকে ছেড়ে দূরদেশে থাকি। মাকে খুব মনে পড়ে। আপনি মাকে নিয়ে একটি গান করেন।’ তারপর থেকে বিভিন্ন দেশের এবং প্রবাসী ভক্তের কাছ থেকে মাকে নিয়ে গান করার অনুরোধ শুনতে হয়েছে এই গায়ককে। ভক্তদের এই চাওয়াকে প্রাধান্য দিয়ে এবার মাকে নিয়ে গান করছেন গায়ক ইমন খান। ‘আজও প্রতি রাত জেগে থাকি তোমার আশায়’ গান দিয়ে রাতারাতি জনপ্রিয়তা পান তিনি। দারুণ ব্যবসাসফল গানটি তাঁকে অল্প সময়ে পরিচিতি দেয়। সেই থেকে এখনো নিয়মিত গান করে চলেছেন ইমন খান।

আমার নিজেরও ইচ্ছে ছিল মাকে নিয়ে গান করার। কিন্তু অনেক দিন ধরেই গানটি লিখে শেষ করতে পাচ্ছিলাম না। কারণ, আমি তো গান সেভাবে লিখতে পারি না।
ইমন খান

ইমন জানান, প্রবাসীরা তাকে প্রতিদিনই বিভিন্ন দেশ থেকে ফোন করেন। অনেকেই এই শিল্পীর কাছে আবদার করে বলেন, ‘ভাই এক লাইন গান শুনতে চাই।’ নিরহংকারী এই শিল্পী তাঁদের মোবাইলেই গান গেয়ে শোনান। এভাবে কথা বলার সময় বেশ আগে একদিন এক ভক্ত বলেন মাকে নিয়ে একটি গান করতে। সেই ভক্তের কথা মনে ধরে তাঁর। গায়ক ইমন খানের সঙ্গে কথা হলে তিনি জানান, প্রবাসী ভক্তদের কথা শুনে অনেক দিন আগেই তিনি গানটি লেখা শুরু করেছিলেন। সম্প্রতি শেষ হয়েছে লেখার কাজ। গানটিতে প্রবাসীদের মাকে কাছে না পাওয়ার দুঃখ-কষ্টকেই তুলে ধরবেন এই গায়ক। তিনি বলেন, ‘বিভিন্ন সময় অনেক প্রবাসী ভক্ত আমাকে ফোন করে বলেছেন মাকে নিয়ে গান করতে। তাঁদের মধ্যে অনেক কষ্ট। কারণ, চাইলেও তাঁরা মাকে দেখতে আসতে পারেন না। তাঁরা মাকে ছেড়ে দিনের পর দিন দূরদেশে থাকেন। আমার প্রবাসী ভক্তদের দীর্ঘদিনের দাবি মাকে নিয়ে গান করার। তাঁদের ইচ্ছেকে প্রাধান্য দিয়েই গানটি করছি।’

বিজ্ঞাপন
default-image

‘আমার নিজেরও ইচ্ছে ছিল মাকে নিয়ে গান করার। কিন্তু অনেক দিন ধরেই গানটি লিখে শেষ করতে পাচ্ছিলাম না। কারণ, আমি তো গান সেভাবে লিখতে পারি না।’—বলেন ইমন খান। মেলোডিয়াস ধারার এই গান তিনি লেখার পাশাপাশি সুর এবং কণ্ঠ দেবেন। গানের লিরিক টিউন করা শেষ। খুব শিগগির তিনি একটি স্টুডিওতে কণ্ঠ দেবেন। এই সময় তিনি আরও বলেন, ‘ভাই, মা তো সবারই খুব প্রিয়। আমি নিজেও মাকে গ্রামে রেখে দূরে থাকি, ঢাকায়। কাজে ব্যস্ত থাকলে আর গ্রামে যাওয়া হয় না। দেশে থেকেই আমার মায়ের কথা মনে পড়লে খারাপ লাগে। যাঁরা প্রবাসে থাকে, তাঁদের তো আরও বেশি খারাপ লাগে। আশা করছি মাকে ছেড়ে যাঁরা দূরে থাকেন, তাঁদের গানটি ভালো লাগবে।’

বিজ্ঞাপন

ইমন খানের বয়স তখন ২০ বছর। প্রথমে চারটি অডিও অ্যালবাম বের করে কোনো সাফল্য আসেনি। ব্যক্তিগত উদ্যোগে ২০০৭ সালের শেষের দিকে ১২টি গান নিয়ে ইমন বের করেন ৫ নম্বর অডিও অ্যালবাম ‘কেউ বোঝে না মনের ব্যথা’। সেই অ্যালবামেই ছিল ‘আজও প্রতি রাত জেগে থাকি তোমার আশায়’ গানটি। রাতারাতি আলোচনায় উঠে আসে গানটি। শোনা যায়, ২০০৮ সালে ইমন খানের এই অ্যালবামের মোট ১৫ লাখ কপি বিক্রি হয়। দেশের আনাচকানাচে ইমনকে পরিচিত করে তোলে গানটি। তাঁর গানের সংখ্যা পাঁচ শতাধিক। তাঁর ৬টি গানের প্রতিটির ভিউ ১ কোটির বেশি। প্রায় ১০ গানের ইউটিউব ভিউ কোটির কাছাকাছি।

default-image
মন্তব্য পড়ুন 0