মিলল ফেলুদা, অপেক্ষা তোপসের

বিজ্ঞাপন
default-image

নিজের ফেসবুক প্রোফাইল থেকে গত মঙ্গলবার সৃজিত মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ওয়েব প্ল্যাটফর্মের জন্য তিনি বানাতে চলেছেন ‘ফেলুদা ফেরত’। তিনি লিখেছেন, ‘আমার অনেক দিনের স্বপ্নপূরণ হতে চলেছে। আমার প্রথম ওয়েব সিরিজ “ফেলুদা ফেরত”।’

তারপর থেকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমসহ চলচ্চিত্র অঙ্গনে প্রশ্ন উঠেছে, কে হবে নতুন ফেলুদা। তিনজনের নাম সামনে এসেছে—অনির্বাণ ভট্টাচার্য, টোটা রায় চৌধুরী ও যিশু সেনগুপ্ত। ফেলুদার চরিত্রে কে থাকবেন, তা নিয়ে দর্শকদের মধ্যে উত্তেজনা ছিল তুঙ্গে।

আজ মঙ্গলবার সৃজিত মুখোপাধ্যায় জানালেন, চূড়ান্ত হয়েছে ফেলুদা এবং জটায়ু। তাঁর ওয়েব সিরিজে ফেলুদার ভূমিকায় দেখা যাবে অভিনেতা টোটা রায় চৌধুরীকে। জটায়ুর ভূমিকায় অনির্বাণ চক্রবর্তী। ভারতীয় গণমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায় বলেছেন, ‘শুধু দর্শক জরিপ নয়, অনেকগুলো বিষয় একসঙ্গে কাজ করছে। আমি দর্শকের ভোট নিয়েছি ঠিকই, কিন্তু সেখানে উল্লেখ করেছি আরও অনেক ফ্যাক্টর রয়েছে। অনির্বাণের সঙ্গে হইচইয়ের চুক্তি রয়েছে। আবির ওয়েব সিরিজ করবে কি করবে না, তা নিয়ে দোটানা রয়েছে। সব থেকে বড় কথা “টিনটোরেটর যিশু” দেখে টোটাকে বলেছিলাম, কোনো দিন যদি আমি ওয়েব সিরিজ করি, সেখানে তুই মুখ্য চরিত্রে থাকবি। তা ছাড়া টোটার চেহারার সঙ্গে স্কেচের অদ্ভুত মিল। সব মিলিয়ে টোটাই ওয়েব সিরিজের ফেলুদা।’

default-image

বাকি রইল শুধু তোপসে আর মগনলাল মেঘরাজ। জানা গেছে, তোপসের চরিত্র নিয়ে একেবারে নতুন কিছু চমক দেওয়ার ইচ্ছা রয়েছে সৃজিতের।

টোটা রায় চৌধুরীর আসল নাম পুষ্পরাগ রায় চৌধুরী। ১৯৯৩ সালে ছাত্রজীবনে কলেজে প্রথম বর্ষে পড়ার সময় প্রথম চলচ্চিত্রে অভিনয় করার সুযোগ পান। এখন তিনি কলকাতার অন্যতম ব্যস্ত অভিনেতা। অভিনয় ছাড়াও টোটা পরিচিত একজন ফিটনেস ট্রেনার হিসেবেও। কলকাতায় রয়েছে তাঁর নিজস্ব জিম। বাছাই করা ছবিতে অভিনয় করলেও টোটার নায়কোচিত নির্মেদ টান টান শরীর দর্শকদের আকর্ষণের অন্যতম কেন্দ্রবিন্দু হয়ে ওঠে। যেসব ছবিতে টোটা অভিনয় করেছেন, সবগুলোতে দর্শকদের মন টেনেছেন তাঁর অভিনয় আর সুদর্শন শরীর দিয়ে।

default-image

ইতিমধ্যেই সন্দীপ রায়ের থেকে ওই ওয়েব সিরিজের স্বত্বও নেওয়া হয়েছে সৃজিতের। ফেলুদা সিরিজের জনপ্রিয় দুই গল্প ‘ছিন্নমস্তার অভিশাপ’ এবং ‘যত কাণ্ড কাঠমান্ডুতে’ নিয়েই বানানো হবে এই সিরিজ।

ফেলুদানির্ভর প্রথম চলচ্চিত্র ছিল ‘সোনার কেল্লা’। এই ছবি মুক্তি পায় ৪৫ বছর আগে, ১৯৭৪ সালে। ‘সোনার কেল্লা’ ছাড়া সত্যজিৎ নিজে আর মাত্র একটি ফেলুদানির্ভর ছবি তৈরি করেছেন, ‘জয় বাবা ফেলুনাথ’। মুক্তি পায় প্রথম ছবির পাঁচ বছর পরে, ১৯৭৯ সালে। সত্যজিৎ রায় পরিচালিত দুটি ছবিতেই ফেলুদার ভূমিকায় অভিনয় করেছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, তোপসের ভূমিকায় সিদ্ধার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং জটায়ুর ভূমিকায় সন্তোষ দত্ত।

default-image

সত্যজিৎ রায়ের পর ফেলুদা নিয়ে ছবি করেন তাঁর ছেলে সন্দীপ রায়। সন্দীপ রায় সাতটি ফেলুদা ছবি বানিয়েছেন— ‘বোম্বাইয়ের বোম্বেটে’, ‘কৈলাসে কেলেঙ্কারি’, ‘টিনটোরেটোর যীশু’, ‘গোরস্থানে সাবধান’, ‘রয়্যাল বেঙ্গল রহস্য’ এবং ‘বাদশাহি আংটি’। এর মধ্যে ‘বাদশাহি আংটি’ ছাড়া সব ছবিতেই ফেলুদার ভূমিকায় অভিনয় করেছেন সব্যসাচী চক্রবর্তী। তোপসের ভূমিকা ভাগাভাগি হয়েছে পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় এবং সাহেব ভট্টাচার্যের মধ্যে। সন্দীপের জটায়ু হয়েছেন বিভু চক্রবর্তী। সন্দীপ রায়ের শেষ ফেলুদা ছবি ‘বাদশাহি আংটি’তে ফেলুদার ভূমিকায় অভিনয় করেছেন আবির চট্টোপাধ্যায়।

এর আগে ছোট পর্দায় (ওয়েব সিরিজে) ২০১৭ সালে ফেলুদার ভূমিকায় পরমব্রত এবং তোপসের ভূমিকায় ঋদ্ধি সেনের অভিনয়ে ‘শেয়াল দেবতা রহস্য’ ও ‘ঘুরঘুটিয়ার ঘটনা’ প্রদর্শিত হয়েছে। তবে এই সিরিজ তৈরির কপিরাইট প্রথমে ছিল বাংলাদেশের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ক্যান্ডি প্রোডাকশনস লিমিটেডের কাছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন