default-image

কিছুদিন আগে খবর বেরোয়, হলিউডের খ্যাতনামা অ্যানিমেশন ছবির পরিচালক গেন্ডি টারটাভস্কির সঙ্গে হোটেল ট্রানসিলভেনিয়া থ্রি-তে কাজের সুযোগ পাচ্ছেন বাংলাদেশের ওয়াহিদ ইবনে রেজা। ছবিতে ওয়াহিদ সনি পিকচার্সের হয়ে অ্যাসোসিয়েট প্রোডাকশন ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করছেন। এ কাজের মধ্য দিয়ে অ্যানিমেশন ছবির জগতের নানা নতুন বিষয় শিখতে যাচ্ছেন তিনি। সেই অভিজ্ঞতা তাঁকে সার্ভাইভিং ৭১ তৈরিতে এগিয়ে নেবে আরও।

ওয়াহিদ ইবনে রেজা এখন আছেন কানাডায়। গতকাল সোমবার সেখান থেকে তিনি প্রথম আলোকে বলেন, আনুষ্ঠানিকভাবে সার্ভাইভিং ৭১ ছবিটি নিয়ে প্রাথমিক পর্যায়ের কাজ শুরু করেছেন। তিনি বলেন, ‘ছবিটি বাস্তব কাহিনি অবলম্বনে তৈরি হবে। যেহেতু আমার বাবার জীবনের গল্প থেকে এটি লেখা হবে, তাই ব্যক্তিগতভাবে এই ছবি আমার জন্য দারুণ গুরুত্ব বহন করে।’ ছবিতে দেখা যাবে ‘ধ্রুব’ ও ‘আক্কু’ নামে দুই বন্ধুর গল্প, যারা একসঙ্গে মুক্তিযুদ্ধের সময় অনেক রোমহর্ষক ঘটনার পর প্রাণে বেঁচে যায় এবং যোগ দেয় যুদ্ধে।

সাশ্রয়ী বাজেটের কথা মাথায় রেখে ওয়াহিদ ইবনে রেজা বলেন, ছবিটি হবে টুডি (দ্বিমাত্রিক) ফরম্যাটে। চরিত্রগুলোকে আঁকা হবে জলরঙে এবং সাদামাটাভাবে।

ওয়াহিদ ইবনে রেজা যেহেতু আগে ব্যাটম্যান ভার্সেস সুপারম্যান: ডন অব জাস্টিস, ক্যাপ্টেন আমেরিকা: সিভিল ওয়ার ডক্টর স্ট্রেঞ্জ-এর মতো বড় সব হলিউড ছবির কারিগরি দলে ছিলেন, তাই তাঁর অ্যানিমেশন ছবিকে ঘিরে দর্শকের প্রত্যাশা বাড়তেই পারে। তবে সেই প্রত্যাশাকে নাগালের মধ্যে রাখতেই ওয়াহিদ ইবনে রেজা বলে রাখলেন, এখনো তিনি তাঁর অ্যানিমেশন চরিত্রের অবয়ব এঁকে যাচ্ছেন। পাশাপাশি খুঁজছেন প্রযোজক। ছবিটি যেহেতু বড় পরিসরে তুলে ধরবে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধকে, তাই দেশের বাইরে এর অনেক কারিগরি কাজ করতে হবে। এ জন্য ছবিটি হতে পারে যৌথ প্রযোজনায়ও। এ ছবিতে শিল্প নির্দেশক হিসাবে থাকবেন শরীফুল ইসলাম।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0