default-image

কোরিওগ্রাফার, নৃত্য প্রশিক্ষক, বাংলাদেশ একাডেমি অব ফাইন আর্টস ইউএসের নির্বাহী পরিচালক নৃত্যশিল্পী মার্জিয়া স্মৃতি। মাত্র ১৪ মাস বয়সে পরিবারের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি দেন তিনি। নিউইয়র্কে বেড়ে ওঠা এই শিল্পী কত্থক, ভরতনাট্যম, ওডিশি ও রাবীদ্রিক নৃত্যে পারদর্শী। সংস্কৃতিমনা পরিবারে বেড়ে ওঠায় বাংলাদেশের সংস্কৃতি চর্চা করে গেছেন তিনি।

default-image

মার্জিয়া ইতিমধ্যে বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে একক পরিবেশনা, দলীয় কোরিওগ্রাফি এবং নৃত্য পরিচালনা করেছেন। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য, ২০১৬ সালে বাফা যুক্তরাষ্ট্রের প্রযোজনায় রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নৃত্যনাট্য ‘চণ্ডালিকা’, ২০১৭ সালে নিউইয়র্কের কুইনস থিয়েটারে রবীন্দ্রনৃত্যনাট্য ‘মায়ার খেলা’, ২০১৮ সালে নিউইয়র্কের কুইনস থিয়েটারে রবীন্দ্রনৃত্যনাট্য ‘চিত্রাঙ্গদা’, ২০১৯ সালে বাফা যুক্তরাষ্ট্রের প্রযোজনায় নৃত্যনাট্য ‘নকশিকাঁথার মাঠ’, ২০২০ সালে ‘আমি বীরাঙ্গনা’ ইত্যাদি।

default-image

সর্বশেষ মার্জিয়া স্মৃতি বাংলাদেশে এসেছিলেন ১৮ বছর আগে। এতদিন পরে বাংলাদেশে এসে শিল্পকলা একাডেমিতে নৃত্যশৈলী উপস্থাপন তাঁর জীবনের অন্যতম সমৃদ্ধ এবং আনন্দময় অধ্যায় হবে বলে তিনি মনে করেন। এই আয়োজনে দেখা যাবে শাস্ত্রীয় নৃত্য, রবীন্দ্রনৃত্য, লোকনৃত্য, দেশাত্মবোধক নৃত্য ও দলীয় নৃত্য। অনুষ্ঠানে দলীয় নৃত্য পরিবেশন করবেন সৃষ্টি কালচারাল সেন্টারের শিল্পীরা। অনুষ্ঠানের পরিকল্পনা, পরিচালনা এবং কোরিওগ্রাফির দায়িত্বে থাকবেন মার্জিয়া স্মৃতি।

বিনোদন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন