default-image

তারকাদের দেখতে কার না ভালো লাগে। ভালো লাগে তাঁদের জীবনযাপনও। তারা কী খান, কী পরেন, কোথায় থাকেন—সবই আগ্রহের কেন্দ্রে ভক্তদের। মুম্বাইয়ের বান্দ্রায় বেশির ভাগ তারকা থাকেন। শাহরুখের বাড়ি মান্নাতের সামনে তো ভিড় লেগেই থাকে! সম্প্রতি বলিউড মহাতারকা অমিতাভ বচ্চন এক দারুণ খবর দিয়েছেন। যাঁরা মুম্বাই যেতে পারেননি, শাহেনশাহর বাড়ি জলসা দেখেননি, তাঁদের জন্য হতে পারে রোমাঞ্চকর অভিজ্ঞতা। অমিতাভ জানিয়েছেন কোন সিনেমা দেখলে দেখা হয়ে যাবে অমিতাভের ‘জলসা’।

বিজ্ঞাপন

৯ এপ্রিল ছিল জয়া বচ্চনের জন্মদিন। জয়া ও অমিতাভ একসঙ্গে প্রচুর সিনেমায় অভিনয় করেছেন। অভিনয় থেকেই তো প্রেম, তারপর ঘর বাঁধা। এই দম্পতির অন্যতম ছবি ‘চুপকে চুপকে’। অমিতাভ ও জয়া ছাড়াও ধর্মেন্দ্র ও শর্মিলা ছিলেন কেন্দ্রীয় চরিত্রে। ছিলেন ওম প্রকাশ, আসরানি ও কেষ্ট মুখোপাধ্যায়ের মতো শক্তিশালী অভিনেতা। ভারতীয় হিন্দি ভাষার সিনেমা ছবিটি ধ্রুপদি কাতারের। কিংবদন্তিতুল্য পরিচালক ঋষিকেশ মুখোপাধ্যায়ের হাতে তৈরি এটি। ছবিটি পা দিল মুক্তির ৪৬তম বছরে। এই সুন্দর মুহূর্তেই এমন উচ্ছ্বসিত খবর জানালেন শাহেনশাহ।

default-image

ইনস্টাগ্রাম ও টুইটারে অমিতাভ এই ছবির কতগুলো স্ক্রিনশট পোস্ট করেছেন। তারপর লিখেছেন, ‘আমাদের ছবি “চুপকে চুপকে”-এর আজ কাজ শেষ হয়েছিল। ছবিটি পা দিল ৪৬ বছরে। এই যে ঘরটি দেখছেন, এটি প্রযোজক এন সি সিপ্পির। আমরা এটি কিনেছিলাম। তারপর বিক্রি করে দিই। আবার কিনি এবং ঘরটি নিজেদের মতো সাজাই। এটা এখন আমাদের বাড়ি জলসা!’

অমিতাভ জানান, শুধু ‘চুপকে চুপকে’ নয়, অনেকগুলো সিনেমা এই বাড়িতে শুটিং হয়। ‘আনন্দ’, ‘নমক হারাম’, সাত্তে পে সাত্তে’সহ অনেক ছবির শুটিং হয়েছিল এই বাড়িতে। অমিতাভের এই পোস্টে উচ্ছ্বসিত ভক্তরা। শুধু তা–ই নয়, তারকারাও মন্তব্য করেছেন উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে। শিল্পা শেঠি লিখেছেন, ‘ওয়াও!’ দিয়েছেন লাভ ইমোজি।
তা ছাড়া এই পোস্ট ভক্তদের লাইকসংখ্যা দেখেই বলে দেওয়া যায়, ভক্তরা কতটা রোমাঞ্চিত। মন্তব্য করেছেন ‘হাম তুম’, ‘ফন’ ছবিখ্যাত পরিচালক কুণাল কোহলিও। তিনি লিখেছেন, ‘এত অসাধারণ সব ছবির শুটিং ও মিটিংয়ের স্মৃতিঘেরা এই বাংলো কেনা অমিতাভের কাছে নিশ্চয়ই দারুণ ব্যাপার ছিল।’
করোনার কারণে বিপর্যস্ত পৃথিবী। অমিতাভ বচ্চনও আক্রান্ত হয়েছিলেন। এখন তিনি সুস্থ। কাজ করছেন স্বাস্থ্যবিধি মেনে। বয়স আশির কাছাকাছি হলেও অভিনয়ে বিরতি নেই। এ বছরও ঝুলিতে আছে ‘চেহরে’, ‘ঝুন্ড’, ‘ব্রহ্মাস্ত্র’, ‘বাটারফ্লাই’, ‘মেডে’ ও ‘গুডবাই’ সিনেমাগুলো।

default-image
বিজ্ঞাপন
বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন