বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বাড়িতে বেশ যত্নেই আছে ভারতীর ছেলে। তাঁদের বাড়িতে এত লোকজন যে সন্ধ্যার আগে নিজেরাই সন্তানকে কোলে পান না ভারতী বা তাঁর স্বামী হর্ষ। তাই এই ফাঁকে শুটিং সেরে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন দুজনে। ভারতী জানিয়েছেন, বাচ্চাটা বাড়িতে বেশ ভালোই আছে। বাড়িতে মায়ের দুধ পান করে সে। পরিবারের সদস্যরাও তাঁর বাচ্চাকে নিয়ে বেশ তৎপর। এ ছাড়া মোবাইল ফোনের মাধ্যমে বাড়িতে বসানো সিসিটিভি ক্যামেরায় সন্তানের দিকে নজর রাখেন ভারতী।

default-image

৩ এপ্রিল পুত্র সন্তানের জন্ম দেন ভারতী। ১৫ এপ্রিল ফেরেন শুটিংয়ে। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সমালোচনাও কম হয়নি। ভারতীয় একটি গণমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ভারতী জানিয়েছেন, বাড়িতে সন্তানকে রেখে কাজে যাওয়ার সময় আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েছিলেন তিনি। এমনকি কেঁদেও ফেলেছিলেন। তবে টেকনোলজির কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন ভারতী। এর মাধ্যমে অন্তত সন্তানকে যেকোনো মুহূর্তে দেখে নিতে পারেন তিনি। এই কমেডি কুইনের বলেন, ‘আমি তার থেকে দূরে থাকার পরও তার জন্য অনেক কিছু করতে পারি। কাজে আসার আগে বাচ্চার জন্য বুকের দুধ পাম্প করে এসেছি। তাতে ওর সারা দিন হয়ে যাবে।’

ভারতী জানিয়েছেন, মা হওয়ার পর তিনি অনেক বদলে গেছেন। সন্তানকে দেখাশোনার জন্য খুব তাড়াতাড়ি গোসল করেন। বাচ্চা ঘুমালে তার দিকে তাকিয়ে বসে থাকেন। ভারতী বলেন, ‘লোকে যখন বলে ওকে হর্ষের মতো লাগছে, তখন আমি রেগে যাই। ৯ মাস পেটে ধরেছি আমি, ওকে হর্ষের মতো দেখালে কেমন করে হবে? ঘুমালে ওকে আমার মতো দেখায়, আর জেগে উঠলে হর্ষের মতো। আমাদের সন্তান ওর মা ও বাবার মতোই চালাক।’

বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন