বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আর্থিক কেলেঙ্কারিতে অভিযুক্ত সুকেশ চন্দ্রশেখরের সঙ্গে জ্যাকুলিনের সম্পর্কের কথা জানাজানি হয় বেশ কয়েক মাস আগে। ২০০ কোটি টাকার প্রতারণা এবং অর্থ আত্মসাতের আরও ২০টি মামলায় দিল্লির রোহিণী কারাগারে আছেন চন্দ্রশেখর। গত বছর জ্যাকুলিনের সঙ্গে তাঁর অন্তরঙ্গ মুহূর্তের একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। গত বছরের এপ্রিল থেকে জুন মাসে ছবিটি তোলা বলে ধারণা করা হয়। চন্দ্রশেখর সে সময় অন্তর্বর্তীকালীন জামিনে ছিলেন।

default-image

এবারে বেরিয়েছে আরও একটি ছবি। এতে বিব্রত হয়ে জ্যাকুলিন ইনস্টাগ্রামে একটি বিবৃতি পোস্ট করেছেন। ইংরেজিতে সেখানে লেখা, ‘দেশ ও দেশের মানুষ আমাকে অনেক সম্মান ও ভালোবাসা দিয়েছেন। তাঁদের মধ্যে গণমাধ্যমের বন্ধুরাও আছেন, যাঁদের কাছ থেকে আমি অনেক কিছু শিখেছি। সম্প্রতি আমাকে একটা জটিলতার মধ্য দিয়ে যেতে হচ্ছে। কিন্তু আমি নিশ্চিত, আমার বন্ধু ও ভক্তরা আমার পাশে থাকবেন। সেই বিশ্বাস থেকেই গণমাধ্যমের বন্ধুদের কাছে আমার অনুরোধ, আমার গোপনীয়তা নষ্ট করে আমার ব্যক্তিগত ছবি প্রকাশ করবেন না। আপনারা নিজেদের প্রিয় মানুষদের ক্ষেত্রে সেটা কখনই করেন না, আশা করি আমার ক্ষেত্রেও করবেন না। আশা করি, আপনাদের শুভবুদ্ধির উদয় হবে।’

কিন্তু জ্যাকুলিন কীভাবে সুকেশের সঙ্গে জড়ালেন? জানা যায়, জ্যাকুলিনের সঙ্গে পরিচয়ের আগে তাঁর সম্পর্কে ভালোভাবে খোঁজখবর নেন সুকেশ। সে সময় এই অভিনেত্রীর হাতে তেমন কোনো বড় কাজ ছিল না। সেই সুযোগে তিনি পাতলেন ৫০০ কোটি টাকার ফাঁদ। জ্যাকুলিনের কাছে খবর পাঠালেন ৫০০ কোটি টাকা বাজেটের একটি বড় সিনেমা বানাবেন তিনি, আর সেটার প্রধান নায়িকা হবেন জ্যাকুলিন। জ্যাকুলিনকে তাঁর অ্যাঞ্জেলিনা জোলির মতো লাগে। ফলে সিনেমার গল্পটা হবে সুপারহিরোর।

default-image

জিজ্ঞাসাবাদে সুকেশের কাছ থেকে গুচির ব্যাগ, জিমের পোশাক, দামি ব্র্যান্ডের জুতা, দুটি হীরের আংটি, একাধিক ব্রেসলেট পাওয়ার কথা স্বীকার করেন জ্যাকুলিন। অন্যদিকে সুকেশ জানিয়েছেন, জ্যাকুলিনকে সাত কোটি টাকার গয়না দিয়েছেন তিনি। যুক্তরাষ্ট্রপ্রবাসী জ্যাকুলিনের বোনকে এক কোটি টাকা ধার দেওয়ার প্রস্তাব আর একটি বিএমডব্লিউ গাড়িও দিয়েছেন। জ্যাকুলিনের মাকে দিয়েছেন একটি পোর্শে, পরিবারের সবার ব্যবহারের জন্য একটি দামি ইতালিয়ান গাড়িও দিয়েছেন বলে দাবি করেছেন সুকেশ। শুধু জ্যাকুলিনই নন, অভিনেত্রী নোরা ফতেহিকেও দামি দামি উপহার দিয়েছিলেন সুকেশ।

বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন