বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মাদক–কাণ্ডের সঙ্গে আরিয়ানের কোনো প্রকার সংযোগও নেই। শাহরুখপুত্রকে প্রমোদতরিতে আয়োজিত পার্টিতে বিশেষ অতিথি হিসেবে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল বলে দাবি করেন সতীশ মানশিন্ডে।

default-image

জানা গেছে, আরিয়ানের মুঠোফোন খতিয়ে এক বিশেষ কোড ওয়ার্ড, মাদকের ছবি, বেশ কিছু চ্যাট উদ্ধার করেছে এনসিবি। এই তারকা পুত্রের সঙ্গে মাদক সরবরাহকারীদের যোগাযোগ আছে বলে দাবি করছে এনসিবি। আর তাই এনসিবি আরিয়ানসহ বাকি অভিযুক্তদের ১১ অক্টোবর পর্যন্ত রিমান্ড বাড়ানোর আবেদন করেছিল।

default-image

এনসিবি এই কোড ওয়ার্ড খোলাসা করতে রিমান্ড বাড়ানোর দাবি করেছে। জানা গেছে, মাদক র‍্যাকেটের শিকড় অবধি পৌঁছাতে সব প্রমাণ সংগ্রহ করছে এনসিবি। এনসিবি কর্মকর্তা সমীর বানখেড়ে আদালতকে জানিয়েছেন যে তদন্তের স্বার্থে আরিয়ানসহ বাকি অভিযুক্তদের হেফাজতে নেওয়া জরুরি।

default-image

শনিবার রাতে এক বিলাসবহুল প্রমোদতরিতে আয়োজিত মাদক পার্টিতে অভিযান চালিয়ে ছিল এনসিবি। এই পার্টিতে আরিয়ানসহ আরও অনেককে আটক করে তারা। প্রায় ১৫ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদের পর আরিয়ান খান, অভিনেতা আরবাজ মার্চেন্ট, মুনমুন ধামেচাসহ আরও অনেককে গ্রেপ্তার করে এনসিবি।

বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন