বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ছবিতে পত্রলেখার মাথায় বিয়ের যে ওড়নাটা দেখা যাচ্ছে, তাতে বাংলায় লেখা, ‘আমার পরান ভরা ভালোবাসা আমি তোমায় সমর্পণ করিলাম।’

default-image

তাঁদের ভালোবাসার বহিঃপ্রকাশ এই লেখা নেটিজেনদেরও মন জয় করেছে। একজন লিখেছেন, ‘ওড়নায় এমন ভালোবাসা বিরল। তারা সুখী হোক।’ আরেকজন লিখেছেন, ‘এখন তারা পরান ভরে ভালোবাসুক।’ রাজকুমারের বিয়ের ছবি দেখে মন্তব্য করেছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। প্রিয়াঙ্কা লিখলেন, ‘আমি কাঁদছি না, তুমি কাঁদছ।’ পত্রলেখার লেহেঙ্গা ডিজাইন করেছেন কলকাতার সব্যসাচী মুখোপাধ্যায়।

প্রায় একই সময় পত্রলেখা পাল তাঁর ইনস্টাগ্রামেও বিয়ের দুটি ছবি পোস্ট করে লেখেন, ‘আমার সর্বস্বকে আমি আজ বিয়ে করেছি আমার বয়ফ্রেন্ড, আমার অপরাধের অংশীদার, আমার পরিবার, আমার আত্মার বন্ধু...গত ১১ বছর ধরে আমার সেরা বন্ধু।

default-image

তোমার স্ত্রী হওয়ার থেকে দারুণ আর কিছু নেই।’ শুধু ওড়নায় বাংলা লেখা নয়, রাজকুমার ও পত্রলেখার বিয়েতে চমক রয়েছে আরেকটিও। বিয়ের পর রাজকুমার রাও পত্রলেখাকে একটি দারুণ উপহার দিয়েছেন। মূল্যবান হিরের আংটি নয়। বরং নিজের কাছে জমিয়ে রাখা বেশ কয়েকটি প্রেমপত্রই নাকি উপহার হিসেবে পত্রলেখাকে দিলেন রাজকুমার।

default-image

একটি বিজ্ঞাপনে প্রথমবার পত্রলেখাকে দেখেন রাজকুমার রাও। সেখানেই তাঁকে মন দিয়ে বসেন অভিনেতা। অন্যদিকে রাজকুমারকে পত্রলেখা প্রথমবার খেয়াল করেন ‘লাভ, সেক্স অউর ধোঁকা’ ছবিতে। যদিও প্রথম দেখায় একেবারেই পত্রলেখার মনে জায়গা করে নিতে পারেননি রাজকুমার। পরবর্তীকালে একসঙ্গে ছবিও করেন তাঁরা। বেশ কিছুদিন বন্ধুত্বের সম্পর্কে থাকার পর তাঁরা নিজেদের সম্পর্কের কথা প্রকাশ্যে জানান।

বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন