বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
আমার তখন মনে হচ্ছিল, কেউ আমার গলায় একটা দড়ি শক্তভাবে বেঁধে দিয়েছেন। আর ফ্লোর জুড়ে আমাকে কেউ টেনেহিঁচড়ে নিয়ে যাচ্ছে।
default-image

মিলাপ জাভেরি পরিচালিত ‘সত্যমেব জয়তে টু’ ছবির এই গানের শুটিং প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘সেটে নানান ছোটখাটো সমস্যায় হামেশাই পড়তে হয়। নাচের সময় কখনো হাঁটুতে যন্ত্রণা হয়, আবার পায়ের পাতা কেটে রক্ত পড়ে। কিন্তু এই ছবির সেটে সবচেয়ে ভয়াবহ অভিজ্ঞতা হয়েছিল। নেকলেসটা এতটা আঁটো ছিল যে আমার গলায় গভীরভাবে চেপে বসেছিল। আর ভেইলের ওজন অত্যন্ত ভারী ছিল। এই সব পরে ক্রমাগত নাচতে নাচতে আমার গলায় এক গভীর ক্ষতের সৃষ্টি হয়েছিল।’

default-image

নোরা এই দুর্বিষহ অভিজ্ঞতার প্রসঙ্গে আরও বলেন, ‘আমার তখন মনে হচ্ছিল, কেউ আমার গলায় একটা দড়ি শক্তভাবে বেঁধে দিয়েছেন। আর ফ্লোর জুড়ে আমাকে কেউ টেনেহিঁচড়ে নিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু শুটিংয়ের জন্য আমাদের হাতে সময় ছিল কম। তাই দাঁতে দাঁত চেপে হাসিমুখে আমাকে এই গানের দৃশ্যটি টানা শুট করতে হয়েছিল। এই সিকোয়েন্সটা হওয়ার পর আমি বিরতি নিয়েছিলাম।’

default-image

‘সত্যমেব জয়তে টু’ ছবিতে জন আব্রাহামকে তিনটি চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যাবে। এ ছবিতে তাঁর বিপরীতে আছেন দিব্যা খোসলা কুমার। ছবিটি ২৫ নভেম্বর প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেতে চলেছে।

বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন