বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

গর্ভবতী মহিলার চরিত্রে অভিনয়ের জন্য নুসরাতকে প্রস্থেটিক মেকআপের সাহায্য নিতে হয়েছে। আর এ জন্য তাঁকে প্রেগন্যান্সি বডিসুট পরতে হয়েছে। এ সম্পর্কে তিনি বলেছেন, ‘একজন গর্ভবতী মহিলার চরিত্রে নিজেকে সম্পূর্ণভাবে মানিয়ে নেওয়ার জন্য অনেক আগে থেকেই প্রস্তুতি নিতে শুরু করি। শুটিং শুরু হওয়ার ২৫ দিন আগে থেকেই আমি প্রেগন্যান্সি বডিসুট পরা শুরু করে দিয়েছিলাম। আসলে আমি অনুভব করতে চেয়েছিলাম যে অন্তঃসত্ত্বা মহিলারা বাচ্চা জন্ম দেওয়ার আগে কী ধরনের পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যান।

default-image

বাড়িতে বডিসুট পরেই গোসল, খাওয়াদাওয়া, ওঠাবসা, ঘুম সবকিছু করতাম। আর এটা অত্যন্ত কঠিন কাজ ছিল। আসলে আমার চরিত্রটি এক শ শতাংশ সততার সঙ্গে পর্দায় ফুটিয়ে তুলতে চেয়েছিলাম। এই প্রেগন্যান্সি বডিসুট আমার জন্য কোনো প্রপ ছিল না। এটা যেন আমার শরীরেরই একটা অংশ হয়ে উঠেছিল। এতে এতটাই অভ্যস্ত হয়ে উঠেছিলাম আমি যে মহড়া বা শুটিংয়ে বিরতির সময় বডিসুট পরেই আরাম করতে বেশি স্বচ্ছন্দ বোধ করতাম। আমার সঙ্গে দর্শকও যেন এই অভিজ্ঞতার সঙ্গী হয়ে ওঠেন, এটাও আমার বাসনা ছিল। তবে আসল জীবনে এখনই মা হওয়ার কোনো ইচ্ছা নেই।’
বিশাল ফুরিয়া পরিচালিত মারাঠি ছবি লাপাছাপির হিন্দি রিমেক ছোরি।

বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন