বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

২০০ কোটির প্রতারণার মামলার তদন্তে এখন ব্যস্ত এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। আর তারই মধ্যে সুকেশ আর জ্যাকুলিনকে নিয়ে ছবি বা সিরিজ নির্মাণের খবর সামনে এসেছে। কিছুদিন আগে প্রতারক সুকেশ আর জ্যাকুলিনের ঘনিষ্ঠ সেলফি নেট দুনিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। যদিও জ্যাকুলিন প্রথমে তাঁদের সম্পর্কের কথা অস্বীকার করেছিলেন। কিন্তু সুকেশের সঙ্গে তাঁর এই ছবি ভাইরাল হওয়ার পর স্পষ্ট যে তাঁদের মধ্যে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ছিল।

default-image

বেশ কিছু বলিউড নির্মাতা জ্যাকুলিন–সুকেশের প্রেমকাহিনি নিয়ে আগ্রহী হয়েছেন। আর তাই নাকি শিগগিরই তাঁরা সুকেশ আর জ্যাকুলিনের প্রেমকথা রুপালি পর্দায় আনছেন। বিষয়টি এখন প্রাথমিক আলোচনার মধ্যে আছে। চিত্রনাট্যের ওপর কাজ চলছে। এর মধ্যে সুকেশ আর জ্যাকুলিনের চরিত্রে কারা অভিনয় করবেন, তা নিয়েও বিস্তর আলাপ–আলোচনা চলছে।

সুকেশ জিজ্ঞাসাবাদের সময় জানিয়েছেন, জ্যাকুলিন হলিউড ছবিতে কাজ করতে চেয়েছিলেন। সুকেশ এই সুযোগের ফায়দা নিয়েছেন। তিনি নিজে জানিয়েছেন যে তিনি জ্যাকুলিনের জন্য হলিউড প্রযোজক মাইকেল রেমন্ড বার্নসের সঙ্গে কথা বলেছিলেন। লায়ন্স গেট এন্টারটেইনমেন্টের সহসভাপতির সঙ্গে বার্নস তাঁর কথা বলিয়ে দিয়েছিলেন। সুকেশ ইডিকে আরও জানিয়েছেন যে তিনি যেকোনো উপায় জ্যাকুলিনকে হলিউড ছবিতে কাজের সুযোগ করে দিতে চেয়েছিলেন। এমনকি এই প্রতারক জ্যাকুলিনকে কথা দিয়েছিলেন যে তিনি হলিউড তারকা লিওনার্দোর সঙ্গে তাঁর কাজের সুযোগ করে দেবেন। সুকেশ বলেছেন, জ্যাকুলিন তাঁর ভালো বন্ধু বলে তিনি এত কিছু করেছিলেন। ইডির চার্জশিটে উল্লেখ আছে, জ্যাকুলিনকে সুকেশ প্রায় ১০ কোটি রুপির উপহার দিয়েছিলেন।

default-image

২০০ কোটির প্রতারণার মামলার জালে বেশ কিছু বলিউড নায়িকার নাম জড়িয়ে গেছে। সুকেশের ফাঁদে বলিউডের আইটেম গার্ল নোরা ফতেহিও পড়েছিলেন। ইডি নোরাকে এই মামলার বিষয়ে একাধিকবার জিজ্ঞাসাবাদ করেছে। এবার প্রতারণা মামলার সঙ্গে বলিউড নায়িকা শ্রদ্ধা কাপুর আর শিল্পা শেঠির নাম উঠে এসেছে। জানা গেছে, এই দুই অভিনেত্রীর সঙ্গেও সুকেশের বন্ধুত্বের সম্পর্ক ছিল। এ ছাড়া অভিনেতা হরমন বাওয়েজার নামও এই মামলার সঙ্গে জড়িয়ে গেছে।

বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন